মেইন ম্যেনু

সীমার পরাজয় অভ্যন্তরীণ দ্বন্দ্বে

‘দলের অভ্যন্তরীণ দ্বন্দ্বের কারণে কুমিল্লা সিটি কর্পোরেশন (কুসিক) নির্বাচনে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী আঞ্জুম সুলতানা সীমার পরাজয় হয়েছে’ বলে মন্তব্য করেছেন দলটির যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক মাহবুব উল আলম হানিফ।

শুক্রবার সকালে ইঞ্জিনিয়ার্স ইন্সটিটিউশন মিলনায়তনে ইউনাইটেড ইসলামিক পার্টি আয়োজিত সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ মন্তব্য করেন।

হানিফ বলেন, ‘দলের মধ্যে শৃঙ্খলা রাখতে হবে। দলের মধ্য থেকে ব্যক্তি স্বার্থে, ব্যক্তি লোভে কাজ করবে এটা মেনে নেয়া হবে না। স্থানীয় নির্বাচনে অনেক সময় গ্রুপিং, দ্বন্দ্বের প্রভাব পড়ে, যেটা কুমিল্লা সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে পড়েছে। আমাদের দলের মধ্যে কিছু অভ্যন্তরীণ দ্বন্দ্বের কারণে এ নীতিবাচক প্রভাব পড়েছে।’

তিনি বলেন, ‘যারা দলের মধ্যে থেকে দলের সিদ্ধান্তের বিপক্ষে কাজ করেছে তাদের কাউকে ছাড় দেয়ার সুযোগ নেই। কুমিল্লার বিষয়ে ইতোমধ্যে সাংগঠনিক সম্পাদকদের বলেছি এ বিষয়ে তথ্য নিয়ে আসতে। এরপর আমরা সাংগঠনিক সিদ্ধান্ত নেবো।’
‘এই জয় দিয়েই প্রমাণিত হয়েছে এই সরকারের বিরুদ্ধে জনগণের অনাস্থা আছে’ বিএনপির এমন বক্তব্যের সমালোচনা করেন আওয়ামী লীগের এই নেতা।

তিনি বলেন, ‘স্থানীয় নির্বাচন আর জাতীয় নির্বাচন এক নয়। স্থানীয় নির্বাচন সিটি মেয়র, পৌরসভা মেয়র, ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারমান, মেম্বারদের ব্যক্তিগত ইমেজের বিষয় আছে। পারিবারিক সামাজিক ও আঞ্চলিকতার টান থাকে। এই নির্বাচন দিয়ে জাতীয় নির্বাচনের পরিসংখ্যান করার কোনো সুযোগ নেই। এই বোধ যাদের মাঝে নেই তাদের কাছে সরকার কী আশা করতে পারে?’

বিএনপির উদ্দেশ্যে হানিফ বলেন, ‘এই নির্বাচনের পর আপনার যদি মনে করে থাকেন আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনে জয়ী হবেন তাহলে প্রস্তুত হন, ভোটে নামুন, জনগণের আস্থা কার প্রতি আছে তা প্রমাণ হয়ে যাবে। আমাদের দৃঢ় বিশ্বাস আগামী নির্বাচনে শেখ হাসিনার নেতৃত্বে আওয়ামী লীগকে ক্ষমতায় আনবে জনগণ।‘

তিনি বলেন, বিএনপি ও জামায়াত এক ও অভিন্ন। এরা বাংলাদেশের ভালো চায় না। ইসলামের ভালো চায় না। এরা মানুষের ক্ষতি করে, ইসলামের ক্ষতি করে। আমাদের দেশে যত জঙ্গি হামলা হয় তার প্রত্যেকটার সঙ্গে বিএনপি-জামায়াতের সম্পৃক্ততা আছে। তারা ইসলামের বেশ ধরে এদের সঙ্গে আতাত করে কাজ করে যাচ্ছে।

জঙ্গি দমনে বিএনপির ঐক্যের আহ্বানের বিষয়ে হানিফ বলেন, কার সঙ্গে ঐক্য? যারা জঙ্গিবাদে পৃষ্টপোষকতা করে যাচ্ছে তাদের সঙ্গে ঐক্য? এ ঐক্য তো বেগম খালেদা জিয়া করতে যাচ্ছে এই জঙ্গিদের রক্ষা করার জন্য।

‘আজ তো আন্তর্জাতিকভাবেই স্বীকৃত হয়েছে যে এদেশে যত জঙ্গি হাঙ্গামা হয়েছে তা হেয়েছে বিএনপির পৃষ্ঠপোষকতায়। এরা দেশকে অস্থিতিশীলকরতে চায়। এই দেশ আমাদের তাই বিএনপি-জামায়তের অশুভ তৎপরতার হাত থেকে দেশকে আওয়ামী লীগের নেতৃত্বে রক্ষা করতে হবে’ যোগ করেন হানিফ।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন খাদ্যমন্ত্রী কামরুল ইসলাম। সভাপতিত্ব করেন আয়োজক সংগঠনের সভাপতি ইসমাঈল হোসাইন।






মন্তব্য চালু নেই