মেইন ম্যেনু

সিলেটের বাসা ঘুরে গেলেন মুজিব

সিলেট নগরীর কানিশাইলস্থ বাসা ঘুরে গেলেন অপহরণকারীদের হাত থেকে সাড়ে তিনমাস পর মুক্তি পাওয়া প্রবাসী বিএনপি নেতা মুজিবুর রহমান মুজিব।

শনিবার বিকেলে পুলিশি প্রহরায় তাকে সিলেট নগরীতে নিয়ে আসা হয়। প্রায় দেড়ঘণ্টা বাসায় অবস্থানের পর তাকে আবার সুনামগঞ্জে নিয়ে যাওয়া হয়।

মুজিব রোববার আদালতে অপহরণের পুরো ঘটনার বর্ণনা দিতে পারেন বলে জানা গেছে। আদালত সেই বক্তব্য রেকর্ডের পর পুলিশি প্রহরা থেকে মুজিব মুক্ত হবেন বলে জানিয়েছেন সুনামগঞ্জ থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) বদরুজ্জামান।

তিনি জানান, শনিবার দুপুর সাড়ে ১২টায় সুনামগঞ্জ থেকে পুলিশ প্রহরায় সিলেটের উদ্দেশ্যে মুজিবকে নিয়ে রওয়ানা হন এসআই বদরুজ্জামান। সিলেটে এসে পপুলার ডায়াগনস্টিক সেন্টারে তার কিছু পরীক্ষা-নিরীক্ষা করানো হয়। এরপর বিকেল ৪টা ৪৭ মিনিটে তাকে কানিশাইলস্থ ‘মুজিব ভিলা’য় নিয়ে যাওয়া হয়।

বাসা থেকে মুজিব তার কাপড়, চিকিৎসকের ব্যবস্থাপত্র ও কিছু প্রয়োজনীয় কাগজপত্র নেন। সন্ধ্যা সোয়া ৬টায় তিনি বাসা থেকে বের হন।

এসআই বদরুজ্জামান আরো জানান, সুনামগঞ্জ থেকে সিলেট আনার সময় মুজিবের নিরাপত্তায় তিনিসহ দুইজন এসআই, একজন এএসআই ও ৯ কনস্টেবল ছিলেন। মুজিব ‘নিখোঁজ’ ঘটনাটি ঢাকা সিআইডি তদন্ত করবে বলে জানান তিনি।

মুজিবের বেয়াই রফিক মিয়া জানান, সিলেট এসে পুলিশ সদস্যদের নিয়ে মুজিব জল্লারপাড়স্থ হোটেল পানসীতে দুপুরের খাবার খান। সবাই মিলে ৩ হাজার ৬০০ টাকার খাবার খান। সেই খাবারের বিল মুজিব দেন বলেও জানান রফিক মিয়া।






মন্তব্য চালু নেই