মেইন ম্যেনু

সার্চ কমিটির কাছে নাম জমা দিয়েছে আ.লীগ-বিএনপি

নির্বাচন কমিশন গঠনে সার্চ কমিটির কাছে নাম জমা দিয়েছে আওয়ামী লীগ ও বিএনপি। মঙ্গলবার মন্ত্রীপরিষদ সচিবালয়ে প্রত্যেক দলের পক্ষ থেকে ৫ জনের নামের তালিকা পৌঁছে দেন।

আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে বেলা পৌনে ১টার দিকে দলের দফতর সম্পাদক ড. আব্দুস সোবহান গোলাপ সচিবালয়ে উপস্থিত এ নামের তালিকা জমা দেন। মন্ত্রিপরিষদের অতিরিক্ত সচিব আব্দুল ওয়াদুদের হাতে ৫ সদস্যের একটি নামের তালিকা জমা দেন তিনি।

পরে বের হওয়ার সময় তিনি সাংবাদিকদের বলেন, ‘গতকাল রাতে আওয়ামী লীগের কার্যনির্বাহী কমিটির বৈঠকে সবার কাছে নাম চাওয়া হয়। সেখানে যাদের নাম বেশি মানুষের কাছ থেকে প্রস্তাব করা হয়েছ তাদের মধ্য থেকে ৫ জনের নাম আজ জাম দেওয়া হয়েছে। প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে ও দলের সাধারণ সম্পাদকের ব্যবস্থানায় এ নাম জমা দেওয়া হলো।’

নাম প্রস্তাবের ক্ষেত্রে আপনারা কোন যোগ্যতা বিবেচনা করেছেন? প্রশ্নের জবাবে গোলাপ বলেন, ‘আমরা তাদের ব্যাকগ্রাউন্ড দেখেছি, তাদের কর্মজীবনের স্বচ্ছতা দেখেছি এবং মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় উদ্বুদ্ধ ব্যক্তিদের নাম প্রস্তাব করা হয়েছে।’

কোনও নারী সদস্যের নাম প্রস্তাব করেছেন কিনা? জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘দলের বৈঠকে অনেকে নারীর নাম প্রস্তাব করেছিলেন। তবে চূড়ান্ত তালিকায় কোনও নারীর নাম রাখা হয়েছে কিনা তা আমি জানি না।’

অন্যদিকে, বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবীর রিজভী ও চেয়ারপারসনের একান্ত সচিব আবদুস সাত্তার বেলা সোয়া ১২টার দিকে ৫ সদস্যের একটি নামের তালিকা জমা দেন।

নামের তালিকা জমা দিয়ে বের হয়ে রুহুল কবীর রিজভী সাংবাদিকদের বলেন, ‘আমি একটি মুখবন্ধ খাম মন্ত্রীপরিষদের অতিরিক্ত সচিবের হাতে জমা দিয়েছি।’

তিনি আরও বলেন, ‘দলের চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া রাষ্ট্রপতির কাছে যে ১৩ দফা দাবি জমা দিয়েছিলেন তার আলোকেই আমরা নাম প্রস্তাব করেছি। এ সময় তিনি তালিকায় থাকা কারও নাম বলেননি।’

রিজভী বলেন, ‘গণতন্ত্র টিকিয়ে রাখার স্বার্থে আমরা সর্বাত্মক চেষ্টা চালিয়ে যাবো।’

মন্ত্রীপরিষদের অতিরিক্ত সচিব আব্দুল ওয়াদুদ সাংবাদিকদের বলেন, ‘এ পর্যন্ত ১৮টি রাজনৈতিক দল নামের তালিকা জমা দিয়েছে। এর মধ্যে গত সোমবার ৫টি এবং আজ ১৩টি দল নামের তালিকা জমা দিয়েছে।

তিনি আরও বলেন, ‘এছাড়া বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টি নামের তালিকা জমা দেবে না বলে আগেই জানিয়েছে।’






মন্তব্য চালু নেই