মেইন ম্যেনু

সার্চ কমিটিকে নাম প্রস্তাব : বিএনপির স্থায়ী কমিটির বৈঠক রাতে

নির্বাচন কমিশনে নিয়োগের জন্য সুপারিশ করতে গঠন করা সার্চ কমিটি রাজনৈতিক দলের কাছে নাম চাওয়ার প্রেক্ষিতে বিএনপির নীতি নির্ধারণী সর্বোচ্চ পর্ষদ স্থায়ী কমিটির বৈঠক ডেকেছেন চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া। আজ রবিবার রাত নয়টায় বিএনপি নেত্রীর গুলশান কার্যালয়ে এই বৈঠক হবে।

এরই মধ্যে দলের স্থায়ী কমিটির সদস্যদের কাছে এই বার্তা পৌঁছে দেয়া হয়েছে। বিএনপি চেয়ারপারসনের মিডিয়া উইংয়ের কর্মকর্তা সামসুদ্দিন দিদার এই তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

শনিবার সার্চ কমিটির প্রথম বৈঠকে রাষ্ট্রপতির সঙ্গে সংলাপে বসা ৩১ টি রাজনৈতিক দলের প্রত্যেকের কাছে পাঁচটি করে নাম চাওয়া হয়। আগামী মঙ্গলবারের মধ্যে এই তালিকা জমা দিতে হবে।
এরপর দেশের দুই প্রধান দল আওয়ামী লীগ ও বিএনপির একাধিক নেতা বলেছেন তারা নাম জমা দেবেন। বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান শামসুজ্জামান দুদু জানান, ‘তারা যদি নাম চায় এবং দলীয় সিদ্ধান্ত হলে আমরা নাম দেবো। তবে এখনো এ বিষয়ে কোনো সিদ্ধান্ত জানা নেই।’

বিএনপির সূত্র জানায়, কাদের নাম প্রস্তাব করা হবে এই সিদ্ধান্ত নিতেই দলের শীর্ষস্থানীয় নেতাদের সঙ্গে বসতে চান খালেদা জিয়া। বিএনপি চেয়ারপারসন কার্যালয়ের কর্মকর্তারা এও জানান, স্থায়ী কমিটির সঙ্গে বৈঠকের পর খালেদা জিয়া ২০ দলের শীর্ষস্থানীয় নেতাদের সঙ্গেও বসতে পারেন। তবে এ বিষয়ে এখনও চূড়ান্ত কোনো সিদ্ধান্ত হয়নি।

কাজী রকিবউদ্দীন আহমেদের নেতৃত্বে বর্তমান নির্বাচন কমিশনের মেয়াদ শেষ হচ্ছে আগামী মাসের শুরুতে। এরপর নতুন যে নির্বাচন কমিশন আসছে তাদের অধীনেই হবে একাদশ সংসদ নির্বাচন। দশম সংসদ নির্বাচন বর্জন করে রাষ্ট্রীয় ক্ষমতাকাঠামোর বাইরে থাকা বিএনপির জন্য এই নির্বাচন অতীব গুরুত্বপূর্ণ। নিবন্ধন আইন অনুযায়ী যেহেতু পরপর দুই বার কোনো নির্বাচনে অংশ না নিলে রাজনৈতিক দলের নিবন্ধন বাতিল হয়ে যায় সেহেতু এই নির্বাচন বর্জন করা বিএনপির জন্য কঠিন।

নির্বাচনকালীন তত্ত্বাবধায়ক সরকারের দাবিতে দশম সংসদ নির্বাচন বর্জন করা বিএনপি এখন প্রধান দাবি হিসেবে তুলে ধরছে শক্তিশালী নির্বাচন কমিশনের কথা। আর এই নির্বাচন কমিশন গঠনে বিএনপির পক্ষ থেকে সব ধরনের সহযোগিতা করা হবে বলেও জানিয়েছেন নেতারা।






মন্তব্য চালু নেই