মেইন ম্যেনু

শিক্ষার্থী আসমা ও গৃহবধূ রুবিনা হত্যাকান্ডসহ বিভিন্ন স্থানে গুম, অপহরণ ও হত্যার প্রতিবাদে

সাতক্ষীরায় মানববন্ধন ও স্মারকলিপি প্রদান

গত ২ মে ২০১৪ সাতক্ষীরার সদর উপজেলার শিক্ষার্থী কিশোরী আসমা খাতুনকে (১৬) আপন ভগ্নিপতি ও তার কয়েক বন্ধু দ্বারা গণধর্ষণ শেষে নির্মমভাবে নির্যাতন চালিয়ে হত্যা করা হয়েছে ও গত ২০ এপ্রিল জেলার কালিগঞ্জ উপজেলার নারায়নপুর গ্রামের গৃহবধূ রুবিনা খাতুনকে (২৩) নির্মমভাবে স্বামী কর্তৃক নিহত এবং সম্প্রতি দেশের বিভিন্ন স্থানে সংগঠিত গুম, অপহরণ ও হত্যার প্রতিবাদে এসব হত্যাকান্ডের সাথে জড়িত প্রকৃত হত্যাকারিদের গ্রেফতার ও এবং দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবিতে সাত্ক্ষীরায় মানববন্ধন ও স্মারকলিপি প্রদান শেষে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী বরবার স্মারকলিপি প্রদান করেছে বিক্ষুব্ধ মানবাধিকার সংগঠনের কর্মীরা, গণমাধ্যমকর্মীরা, বিক্ষুদ্ধ নাগরিক সামজের নেতৃবৃন্দ। সম্প্রতি সাতীরা জেলার দেবহাটা উপজেলার কুলিয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ও জেলা আওয়ামী লীগের অর্থ সম্পাদক আসাদুল হকের পুত্র (চাঁদাবাজি ও ছিনতাইয়ের ঘটনায় দ্রুত বিচার আইনে দায়ের করা মামলার পালাতক আসামি) দেলওয়ার হোসেন শাওন দেবহাটা উপজেলার কুলিয়া-কোমরপুর সড়কের মধ্যবর্তী স্থানে বৈচনা গ্রামে তাদের বিলাসবহুল বাগানবাড়িতে নবম শ্রেণিতে পড়–য়া শিক্ষার্থী আসমাউল হুসনা ওরফে আসমা খাতুনকে দীর্ঘদিন ধরে আটকে রেখে ধর্ষণ করে। এক পর্যায়ে মেয়েটি অন্ত:স্বত্ত্বা হয়ে পড়ে। এ অবস্থায় গত ২ মে ২০১৪ শুক্রবার মেয়েটিকে গর্ভপাত ঘটনানোর জন্য নানাভাবে চেষ্টা করে। মেয়েটি রাজি না হলে তাকে ওই অবস্থায় ব্যাপক মারধর করা হয়। এক পর্যায়ে মেয়েটির গলাটিপে শ্বাসরোধ করে হত্যা করা হয় বলে অভিযোগ উঠেছে। নিহত আসমা খাতুন সাড়ে সাত মাসের অন্ত:স্বত্ত্বা ছিল বলে ময়না তদন্তের রিপোর্টে উল্লেখ করেছেন সংশ্লিষ্ট চিকিৎসক। এদিকে, গত ২০ এপ্রিল ২০১৪ কালিগঞ্জ উপজেলার নারায়নপুর গ্রামের গৃহবধূ রুবিনা খাতুন (২৩) নির্মমভাবে স্বামী আহসানউল্লাহ ও পরিবারের সদস্যদের হাতে নিহত হয়েছে। উভয় মামলায় সংশ্লিষ্ট থানায় মামলা হয়েছে। এছাড়া দেশের বিভিন্ন স্থানে অব্যাহতভাবে গুম, অপহরণ ও হত্যার প্রতিবাদে ৬ মে ২০১৪ মঙ্গলবার সকাল ১০টায় সাতক্ষীরা প্রেসকাবের সামনে হিউম্যান রাইটস ডিফেন্ডার ফোরাম ও সাতক্ষীরা নাগরিক উদ্যোগের আয়োজিত মানববন্ধন শেষে সাতক্ষীরা জেলা প্রশাসকের মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এবং সাতক্ষীরা পুলিশ সুপারের মাধ্যমে স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী বরাবর স্মারকলিপি প্রদান করেছে। হিউম্যান রাইটস ডিফেন্ডার ফোরাম, সাতক্ষীরার সদস্য সচিব ও নবাধিকারকর্মী মাধব চন্দ্র দত্তের পরিচালনায় স্মারকলিপি পাঠ করেন লুইস রানা গাইন। বক্তব্য রাখেন প্রথম আলোর নিজস্ব প্রতিবেদক কল্যাণ ব্যানার্জি, আইন ও সালিশ কেন্দ্র-আসক’র স্টাফ ল’ ইয়ার এ্যাড. মিঠুন দাস ও এ্যাড. সুলতান মাহমুদ মিলন, বরসার সহকারি পরিচালক (কর্মসূচি) নাজমুল আহসান মুন্না, জেলা ভূমিহীন সমিতির সাধারণ সম্পাদক আলী নুর খান বাবুল, উন্নয়নকর্মী অপরেশ পাল, আবু জাফর সিদ্দিকী, তহমিনা ইসলাম, সরদার গিয়াস উদ্দীন, শ্যামল কুমার বিশ্বাস, ডেইজি আহমেদ, সিরাজুন সঞ্জু, মির্জা সুলাতানা, সাতক্ষীরা নাগরিক উদ্যোগের ফারুক রহমান, সাংবাদিক রঘুনাথ খা এবং নিহত গৃহবধূ রুবিনা খাতুনের ভাই জিএম ফয়সাল আহমেদ প্রমুখ।






মন্তব্য চালু নেই