মেইন ম্যেনু

সাকিবকে মিস করছেন মুশফিক

সাকিব আল হাসানের প্রভাব বাংলাদেশ দলে কতটা তা ওয়েস্ট ইন্ডিজে গিয়ে আরেকবার বুঝিয়ে দিলেন অধিনায়ক মুশফিকুর রহিম। মঙ্গলবার ম্যাচপূর্ব সংবাদ সম্মেলনে তিনি বলে গেলেন, ‘সত্যিকার অর্থেই সাকিব ছাড়া সিরিজটা কঠিনই হবে।’ মারাত্মক আচরণগত সমস্যার জেরে ছয় মাসের নিষেধাজ্ঞার কবলে পড়েছেন বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার।

এদিন মুশফিকের কণ্ঠে সাকিব প্রসঙ্গে হাহাকার থাকলেও জানিয়েছেন, তরুণদের জন্য এই সিরিজ দারুন একটা সুযোগ। কারণ সামনেই বিশ্বকাপ। তিনি বলেন, ‘গত আট-দশ বছর ধরেই ও (সাকিব) আমাদের সেরা খেলোয়াড়। অবশ্যই তাকে আমরা মিস করবো। সাকিব ছাড়া সিরিজ খেলাটা আমাদের জন্য কঠিনই হবে। তবে আমাদের সবশেষ সিরিজে ভারতের বিপক্ষে বেশ কজন তরুণ দারুণ করেছে। বিশ্বকাপের আগে এই সিরিজ তাদের জন্য আরেকটা সুযোগ।’

অবশ্য সর্বশেষ (২০০৯) উইন্ডিজ সফর বাংলাদেশের জন্য ছিল সোনায় মোড়ানো। টেস্ট এবং ওয়ানডে দু’ঘরানার ক্রিকেটেই ক্যারিবিয়দের ধবলধোলাই করেছিল বাংলাদেশ। তবে এও ভুলে গেলে চলবে না, ওই সিরিজে বোর্ডের সঙ্গে দ্বন্দ্বে জড়িয়ে খেলেননি উইন্ডিজের শীর্ষস্থানীয় কোনো ক্রিকেটারই। তখন ক্যারিবিয়দের ১১ খেলোয়াড়কে জড়ো করতেই হিমশিম খেতে হয়েছে।

এবার প্রেক্ষাপট পুরোটাই আলাদা। ইনজুরি কাটিয়ে দলে ফিরেছেন ব্যাটিং দৈত্য ক্রিস গেইল-কাইরন পোলার্ড, সঙ্গে গতির ঝড় তোলা কেমার রোচও। তাই বাস্তবতাটাও মানছেন মুশফিক, ‘আমরা ঘরের মাঠে ওয়ানডে ভালো খেলি। কিন্তু দেশের বাইরে ধারাবাহিকতায় সমস্যা হয়। সেটা আমাদের মাথায় আছে এবং ভালো করার চেষ্টা করবো। যদিও আমরা কাগজে-কলমে অতটা শক্তিশালী নই। তবে মাঠে পারফর্ম করতে পারলে সবই সম্ভব।’

এদিকে ক্যারিবিয় অভিযান মুশফিকের দল শুরু করেছে জয় দিয়েই। অফ ফর্মে থাকা তামিম ইকবাল-মাহমুদুল্লাহ ইঙ্গিত দিয়েছেন ফর্মে ফেরার। তাছাড়া কিছুদিন আগে ‘এ’ দলের হয়ে ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফর করে গেছেন ইমরুল কায়েস-সোহাগ গাজীরা। মুশফিক বলছেন, ‘কিছুদিন আগে ‘এ’ দল এখানে খেলে গেছে। এটা আমাদের কিছুটা হলেও কাজে আসবে। একই সময়ে আমরা প্রস্তুতি ম্যাচেও ভালো করেছি। আমাদের ব্যাটসম্যান-বোলার সবাই ভালো করেছে।’

ক্যারিবিয় অধিনায়ক ডোয়াইন ব্রাভো জানিয়েছেন, রবি রামপালের সঙ্গে রোচ যুক্ত হওয়ায় তিনি খুশি। ঘরের মাঠে নিউজিল্যান্ড সিরিজে ইনজুরিতে পড়েন রোচ। ব্রাভোর আশা জেসন হোল্ডারও এই সিরিজে দারুণ কিছু করে দেখাতে পারে। তিনি বলেন, ‘ইনজুরির কারণে রোচ বাইরে ছিল। রবি (রবি রামপাল) যতদিন ধরে খেলছে ওই আমাদের সেরা বোলার। জেরমে টেইলরও ফিরেছেন। আপনার জেসন হোল্ডারের কথাও ভুলে গেলে চলবে না। আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে আসার পর থেকেই সে দারুন করছে। আমি খুশি যে আমাদের সব খেলোয়াড়ই ফিট আছে।’






মন্তব্য চালু নেই