মেইন ম্যেনু

সরকার যে ব্যর্থ, লঞ্চডুবিই তার বহিঃপ্রকাশ : খালেদা জিয়া

মুন্সীগঞ্জে পদ্মা নদীতে পিনাক-৬ নামের যে লঞ্চটি ডুবে গেছে তার জন্য সরকারকে দুষলেন বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া। মর্মান্তিক ও হৃদয়বিদারক এ ঘটনায় গভীর শোক ও দুঃখ প্রকাশ করে বিবৃতি দিয়েছেন তিনি।

ঘটনার প্রায় ১০ ঘণ্টা পর সোমবার রাতে দলের দপ্তরের দায়িত্ব প্রাপ্ত যুগ্ম-মহাসচিব অ্যাডভোকেট রুহুল কবির রিজভী আহমে স্বাক্ষরিত এক বিবৃতিতে এ ঘটনায় সরকারি ব্যর্থতার কড়া সমালোচনা করেন বেগম খালেদা জিয়া।

তিনি বলেন, ‘সরকার দেশ পরিচালনায় সামগ্রিকভাবে যে ব্যর্থতার পরিচয় দিয়েছে এই লঞ্চডুবি তারই বহিঃপ্রকাশ। পদ্মা নদীতে তিন শতাধিক যাত্রীসহ লঞ্চডুবিতে যারা প্রাণ হারিয়েছে, আহত হয়েছে এবং নিখোঁজ রয়েছে তাদের স্বজনদের মতো আমিও গভীরভাবে ব্যথিত, শোকাভিভুত ও উদ্বিগ্ন।’

বেগম জিয়া বলেন, ‘বারবার নদ-নদীতে নৌযান ডুবির ঘটনায় অসংখ্য মানুষের জীবনহানী ঘটার কারণ খতিয়ে দেখে কার্যকর পদক্ষেপ গ্রহণে সরকার সম্পূর্ণরূপে ব্যর্থ হয়েছে। জনগণের প্রতি সরকারের দায়িত্ববোধ না থাকার কারণেই মানুষের জীবনের নিরাপত্তার বিষয়টি বার বার উপেক্ষিত থাকছে। নদ-নদীতে একের পর এক নৌযান দুর্ঘটনার পুনরাবৃত্তিতে ব্যাপক জানমালের ক্ষয়ক্ষতিতেও সরকারের টনক নড়ছে না।’

খালেদা জিয়া নিহতদের বিদেহী আত্মার মাগফিরাত ও আহতদের দ্রুত সুস্থতা কামনা করেন। তিনি নিখোঁজ যাত্রীদের উদ্ধারে তড়িৎ ব্যবস্থা গ্রহণসহ ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারকে ক্ষতিপূরণ দেয়ারও জোর দাবি জানান।

এদিকে বেলা ১১টার দিকে অতিরিক্ত যাত্রীবাহী লঞ্চটি ডুবে যায়। ধারণা করা হচ্ছে লঞ্চটিতে তিন শতাধিক যাত্রী ছিল। এ পর্যন্ত অন্তত ১৫টি লাশ উদ্ধারের খবর পাওয়া গেছে। কিছু যাত্রীকে জীবিত উদ্ধার করা হয়েছে। এখনও অনেকে নিখোঁজ রয়েছে। উদ্ধার তৎপরতায় সংশ্লিষ্টদের তৎপরতা থাকলেও বৈরী আবহাওয়ায় তা বিঘ্ন হচ্ছে।






মন্তব্য চালু নেই