মেইন ম্যেনু

ঢিলেঢালা হরতাল পালিত

সরকার জামায়াতকে বাঁচাতে চাইছে: ইসলামী ফ্রন্ট

সুপ্রিম কোর্টের জামে মসজিদের খতিব ও চ্যানেল আইয়ের ধর্মীয় অনুষ্ঠানের উপস্থাপক মাওলানা নূরুল ইসলাম ফারুকীর হত্যাকারীদের গ্রেপ্তার ও বিচারের দাবিতে সারাদেশে অর্ধদিবস হরতাল শেষ হয়েছে। রবিবার সকাল ছয়টা থেকে হরতাল শুরু হয়। চলে বেলা দুইটা পর্যন্ত। হরতাল শেষে জনজীবন স্বাভাবিক হয়েছে।
রাজধানী ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন জায়গায় কোনো অপ্রীতিকর ঘটনার খবর পাওয়া না গেলেও চট্টগ্রামে সকাল ৯টার দিকে হরতালের সমর্থনের পিকেটিংয়ের ঘটনা ঘটেছে। এ সময় তিন পিকেটারকে আটক করেছে পুলিশ।
ইসলামী ফ্রন্ট জাতীয় রাজনৈতিক সংগঠন হলেও বৃহত্তর চট্টগ্রামেই তাদের সাংগঠনিক শক্তি সবচেয়ে বেশি।
ফারুকীর খুনিদের গ্রেপ্তার ও বিচারের দাবিতে বাংলাদেশ ইসলামী ছাত্রসেনার আধা বেলা হরতালের মধ্যে রাজধানীর পল্টনে এক সমাবেশে ইসলামী ফ্রন্টের কেন্দ্রীয় কমিটির সাংগঠনিক সচিব মোহাম্মদ মাসউদ হোসাইন আল-কাদরী এই হত্যাকাণ্ডের জন্য জামায়াতকে দায়ী করে বলেন,সরকার  জামায়াতকে বাঁচাতে চাইছে।
তিনি বলেন, “সরকার জামায়াতকে বাঁচাতে চাইছে। হত্যাকাণ্ডের পর সরকারের তরফ থেকে কোনো নিন্দা জানানো হয়নি। জামায়াতের পক্ষ থেকে যেভাবে মাওলানা ফারুকীর বিরুদ্ধে প্রোপাগাণ্ডা ছড়ানো হচ্ছে, তাতে মনে হচ্ছে তারাই এ হত্যাকাণ্ড ঘটিয়েছে।”
‘আসল’ হত্যাকারীদের দ্রুত গ্রেপ্তারের দাবি জানিয়ে ছাত্রসেনার সভাপতি মুহাম্মদ নুরুল হক চিশতী সমাবেশে জানান,  সোমবার তারা আন্দোলনের কর্মসূচি নিয়ে ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটিতে সংবাদ সম্মেলন করবেন। এছাড়া ২ সেপ্টেম্বর চট্টগ্রামের লালদীঘি ময়দানে হবে প্রতিবাদ সমাবেশ।

সকাল থেকে বন্দরনগরী চট্টগ্রামের বিভিন্ন এলাকায় ভারি যানবাহন কম চলতে দেখা গেছে। তবে বেলা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে বিভিন্ন সড়কে যানবাহনের সংখ্যা বাড়তে থাকে। দোকানপাট বন্ধ ছিল।
সকালে থেকে নগরী থেকে দূরপাল্লার বাস ছেড়ে না গেলেও ট্রেন ও বিমানের সকল ফ্লাইট ছেড়ে গেছে যথানিয়মে।
ইসলামী ছাত্রসেনা ও ইসলামী ফ্রন্টের নেতাকর্মীরা সকাল থেকে নগরীর মুরাদপুর, বহদ্দারহাট, জিইসি মোড়, চকবাজার, দেওয়ানহাট এলাকায় অবস্থান নিয়ে গাড়ি চলাচলে বাধা দেয়। সড়কে রোড ডিভাইডার ছড়িয়ে দিয়ে যান চলাচল বন্ধ করে দেয়। মুরাদপুর এলাকায় সবধরণের যান চলাচল বন্ধ থাকে। তবে পুলিশ কাউকে গ্রেপ্তার করেনি।
নগরীর মুরাদপুর মোড়ে সমাবেশে ইসলামী ফ্রন্ট ও ইসলামী ছাত্রসেনার নেতারা বক্তব্য দেন। এ ছাড়া জেলার হাটহাজারী, বাঁশখালী, চন্দনাইশ, পটিয়াসহ বিভিন্ন উপজেলার কয়েকটি পয়েন্টে অবস্থান নিয়ে হরতাল পালন করে ইসলামী ছাত্রসেনার কর্মীরা।

এদিকে রবিবার সকাল সাড়ে ৭টার দিকে রাজধানীর গেণ্ডারিয়া, কল্যাণপুর, বিজয়নগর, মিরপুর ও মতিঝিলে ছাত্রসেনাকর্মীরা হরতালের সমর্থনে মিছিল করলেও কোথাও গোলযোগ ঘটেনি বলে জানিয়েছে পুলিশ।
দিনের শুরুতে রাজধানীর রাস্তায় প্রাইভেট কার কম দেখা গেলেও বিভিন্ন রুটের বাস ও অটোরিকশা চলাচল করে স্বাভাবিকভাবে। অফিসগামী যাত্রীদের ভিড়ও অন্য দিনের মতোই।
অবশ্য হরতালের কারণে বাস মালিকরা ঝুঁকি না নেয়ায় সকালে সায়েদাবাদ, গাবতলী ও মহাখালী বাস টার্মিনাল থেকে দূরপাল্লার বাস ছেড়ে যায়নি।
সৌদিয়া পরিবহনের ব্যবস্থাপক মো. বাহারউদ্দিন বলেন, আমরা ঝুঁকি নিচ্ছি না, তাছাড়া যাত্রীও কম।
ইউনিক পরিবহনের ব্যবস্থাপক মো. আব্দুল হক জানান, শনিবার রাতে ছেড়ে যাওয়া তাদের কয়েকটি গাড়ি চকোরিয়ায় আটকে আছে হরতালকারীদের বাঁধার কারণে। ভাঙচুর না করলেও বাসগুলোকে যেতে দেয়া হচ্ছে না।
সকালে সদরঘাট থেকে সূচি অনুযায়ী সব লঞ্চ ছাড়ে বলে জানিয়েছেন বিআইডব্লিউটিএর পরিদর্শক এ বি এম মাহামুদ।
রাজধানীর বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ মোড়ে সকাল থেকেই পুলিশ সতর্ক অবস্থানে ছিল। গেণ্ডারিয়া থানার এস আই আশিকুর রহমান জানান, সকালে মিছিল করার সময় ছাত্রসেনার তিন কর্মীকে আটক করা হলেও কিছুক্ষণের মধ্যে তাদের ছেড়ে দেয়া হয়েছে।
এস আই আশিক বলেন, তারা শান্তিপূর্ণ মিছিল করায় আমরা বাধা দেইনি। কোথাও কোনো গোলযোগের খবর আমরা পাইনি।
ইসলামী ছাত্রসেনার ঢাকা মহানগর শাখার সাধারণ সম্পাদক ইমরান হোসেন তুষার জানান, রাজধানীর বিভিন্ন স্থানে মিছিল শেষে তাদের কর্মীরা জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে জড়ো হয়।

শনিবার বিকালে রাজধানীতে সংবাদ সম্মেলন করে বেলা ২টা পর্যন্ত এই হরতালের ঘোষণা দেন ছাত্রসেনার সভাপতি মুহাম্মদ নুরুল হক চিশতী। তিনি জানিয়েছেন, দেশের বন্যা কবলিত জেলাগুলো হরতালের আওতামুক্ত।

সিলেটে হরতাল:

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, সকাল সোয়া ৮টার দিকে সিলেট নগরীর সিটি পয়েন্টে ইসলামী ফ্রন্ট জেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক মাওলানা আহমদ আলী হেলালী নেতৃত্বে ১৫-২০ জন নেতাকর্মী জড়ো হন। সেখানে তারা পিকেটিংয়ের চেষ্টা করলে পুলিশ বাধা দেয়।

এক পর্যায়ে সকাল সাড়ে ৮টার দিকে তারা কোর্ট পয়েন্ট থেকে মিছিল বের করতে চাইলে পুলিশ তাদের ব্যানার কেড়ে নেয়। এ অবস্থায় নেতা-কর্মীরা কোর্ট পয়েন্ট এলাকা ছেড়ে যায়।

এসএমপির কোতয়ালী থানার ওসি মনিরুল ইসলাম জানান, নগরীতে যান চলাচল স্বাভাবিক রয়েছে। সকালে ২/১ পিকেটার এলেও তারা রাস্তা ছেড়ে চলে গেছে।

ইসলামী ফ্রন্ট সিলেট জেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক মাওলানা আহমদ আলী হেলালী বলেন, হরতালের সমর্থনে নগরীতে খণ্ড খণ্ড মিছিল হচ্ছে। সকাল ৯টায় চৌহাট্টা থেকে জিন্দাবাজার পর্যন্ত মিছিল হয়েছে।

তিনি বলেন, পুলিশ তাদের কমর্সূচিতে বাধা দিচ্ছে। এমনকি তাদের ব্যানারও কেড়ে নিয়েছে।

প্রসঙ্গত, বুধবার রাতে রাজধানীর পূর্ববাজারের একটি ফ্ল্যাটে বেসরকারি টেলিভিশন চ্যানেল আইয়ের উপস্থাপক মওলানা নুরুল ইসলামকে খুন করে দুর্বৃত্তরা।

এ ঘটনায় এ পর্যন্ত এক নারীসহ তিনজনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। ইসলামী ফ্রন্টের সভাপতিম-লীর সদস্য ফারুকী আহলে সুন্নাত ওয়াল জামাতেরও নেতা ছিলেন। এ ঘটনার প্রতিবাদে ইসলামী ছাত্রসেনার ব্যানারে সিলেটসহ সারাদেশে অর্ধদিবস পালন করা হচ্ছে।

গত ২৭ অগাস্ট রাতে পূর্ব রাজাবাজারের বাড়িতে পরিবারের সবাইকে বেঁধে ইসলামী ফ্রন্টের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য ফারুকীকে গলা কেটে হত্যা করে দুর্বৃত্তরা।

ফারুকী সুন্নি মতাবলম্বী সংগঠন আহলে সুন্নাত ওয়াল জামাতের আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক ছিলেন। টেলিভিশনে ইসলামী অনুষ্ঠান উপস্থাপনাও করতেন তিনি।



« (পূর্বের সংবাদ)



মন্তব্য চালু নেই