মেইন ম্যেনু

সমাবেশে খালেদা জিয়া

বিএনপির ‘গণতন্ত্র হত্যা দিবসের’ সামবেশে যোগ দিয়েছেন দলটির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া। বিকেল ৩টায় প্রধান অতিথি হিসেবে তিনি সমাবেশ স্থলে এসে পৌঁছান।

দশম জাতীয় সংসদ নির্বাচন বর্জন করা বিএনপি ৫ জানুয়ারি ‘গণতন্ত্র হত্যা’ দিবস পালন করছে। দিবসটি উপলক্ষে তারা রাজধানীর সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে সমাবেশ কর্মসূচি ঘোষণা করে। পরে বিশেষ বিবেচনায় এবং বেশ কিছু শর্তে নয়াপল্টনে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে এই সমাবেশের অনুমিত পায়।

এদিকে সমাবেশকে কেন্দ্র করে এরই মধ্যে নয়াপল্টন এবং এর আশপাশ এলাকা নেতা-কর্মীদের উপস্থিতিতে পূর্ণ হয়ে গেছে। নাইটিঙ্গেল মোড় থেকে ফকিরাপুল মোড় পর্যন্ত সমাবেশের পরিধি বিস্তৃত হয়েছে।

এর আগে দুপুর ২টায় পবিত্র কোরআন তিলাওয়াতের মধ্য দিয়ে সমাবেশ শুরু হয়। এদিকে মঞ্চে অনুমোদিত নেতা ছাড়া অন্যদের থাকতে নিষেধ করা হয়েছে। মঞ্চে থাকবেন বিএনপির ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, স্থায়ী কমিটির সদস্য ব্যারিস্টার মওদুদ আহমেদ, মাহবুবুর রহমান, আ স ম হান্নান শাহ, ব্যারিস্টার জমিরউদ্দিন সরকার, ড. আবদুল মঈন খান, নজরুল ইসলাম খান, ভাইস চেয়ারম্যান হাফিজ উদ্দিন আহমেদ, সেলিমা রহমান, আবদুল্লাহ আল নোমান, চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা খন্দকার মাহবুব হোসেন, এ জেড এম জাহিদ হোসেন, অ্যাডভোকেট জয়নাল আবেদিন।

সমাবেশে সভাপতিত্ব করছেন দলটির স্থায়ী কমিটির সদস্য গয়েশ্বর চন্দ্র রায়। মঞ্চের ব্যানারে লেখা হয়েছে, ‘৫ জানুয়ারি গণতন্ত্র হত্যা দিবস উপলক্ষে জনসভা।’

জনসভার জন্য রাজধানীর নাইটিঙ্গেল মোড় এবং ফকিরাপুল পর্যন্ত প্রায় ২০টির বেশি মাইক লাগানো হয়েছে। কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে যাওয়ার এই দুটি পথে আইনপ্রয়োগকারী সংস্থার সদস্যদের মোতায়েন দেখা গেছে।






মন্তব্য চালু নেই