মেইন ম্যেনু

লাখ টাকার ইলিশ কেনার লোক আছে, কিন্তু শিশু দুটোর একবেলা খাওয়ানোর কেউ নেই!

কাজের ফাঁকে হালকা কিছু খাওয়ার জন্য হোটেল এ ঢুকলাম। হঠাৎ দেখলাম ২টা বাচ্চা হোটেলে ভাত খাচ্ছিল।
এত ছোট বাচ্চা হোটেলে ভাত খেতে দেখে বিষয়টা আজব লাগলো।
জিগেস করলাম ভাগিনারা হোটেলে ভাত খাও কেন। বললো মা ভাত রান্না করে নাই তাই।
সকালে ঘুম থেকে উঠে দেখে মা বাসায় নাই।
কাজের উদ্দেশ্যে বের হইসে মা।
সকাল থেকে কিছু ই খাওয়া হয় নাই।
তাই খুদার জালায় হোটেল এ ভাত খেতে আসচি।
বড় কঠিন দুনিয়া, মাগনা কি আর কেও ভাত দেয়। হোটেলের পানি এনে দিলাম দুই ভাই মিলে তারপর খাওন দিলো।
আমি দেখলাম পানির ড্রামটা আনুমানিক উচ্চতায় প্রায় ওদের থেকে ৩ ফুট বেশি বড়। এর বিনিময়ে দুই প্লেট ভাত। ওদের সাথে কথা বল্লাম কিছুক্ষন। বড় ভাইয়ের নাম রিফাদ বয়স ৫, আর ছোট ভাইয়ের নাম রিমন বয়স ৩ । ক্যন্সারে বাবা মারা গেছে গত রমজান মাসে। বাবা মারা যাওয়ার পর মা যা কাজ করে পাই তাই খাই।
সব দেখার পরে পুরাই ইমোশনাল হয়ে গেলাম। অনেক কিছু করতে ইচ্ছা করছিল ওদের জন্য। সাধ্য মত যতটুক পারলাম করলাম।
দুনিয়া টা খুব কঠিন রে ভাই।
কেও পান্তা খায় শখ করে
আবার কেও ভাত ই চোখে দেখে না।

বিঃদ্রঃ শুনলাম আমাদের দেশেই ইলিশের হালি একলক্ষ টাকা

[ সংগৃহীত ]

S M Saifur Rahman -এর ফেসবুক থেকে নেওয়া






মন্তব্য চালু নেই