মেইন ম্যেনু

লতিফের আসনে বিজয়ী সোহেল

টাঙ্গাইল-৪ (কালিহাতী) আসনের উপনির্বাচনে বিজয়ী হয়েছেন ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের প্রার্থী হাসান ইমাম খান সোহেল হাজারি।

মঙ্গলবার সন্ধ্যায় সহকারী রিটার্নিং অফিসার তাজুল ইসলাম বেসরকারিভাবে তাকে বিজয়ী ঘোষণা করেন।

সোহেল হাজারি নৌকা প্রতীকে এক লাখ ৯৩ হাজার ৫৪৭ ভোট পেয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী ন্যাশনাল পিপলস পার্টির (এনপিপি) প্রার্থী ইমরুল কায়েস আম প্রতীকে পেয়েছেন এক হাজার ৬৯৬ ভোট।

দু’জনের ব্যবধান এক লাখ ৯১ হাজার ৮৫১ ভোট। এছাড়া এখানে বাংলাদেশ ন্যাশনালিস্ট ফ্রন্টের (বিএনএফ) প্রার্থী আতাউর রহমান খান টেলিভিশন প্রতীকে পেয়েছেন এক হাজার ৩২০ ভোট।

মঙ্গলবার সকাল ৮টা থেকে একটানা বিকাল ৪টা পর্যন্ত এই আসনের উপনির্বাচনে ভোট গ্রহণ করা হয়। ৪৬ দশমিক ৩৪ শতাংশ ভোট পড়েছে।

অনিয়মের অভিযোগে সকালে বল্লববাড়ি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রের ভোট গ্রহণ বাতিল করা হয়। বাতিল কেন্দ্রের ভোটার ২ হাজার ৭৪৩ জন।

কিন্তু বাতিল ভোটের চেয়ে আওয়ামী লীগ মনোনিত প্রার্থীর ভোটের ব্যবধান বেশি হওয়ায় তাকে বেসরকারিভাবে নির্বাচিত ঘোষণা করা হয়।

ধর্ম নিয়ে বিতর্কিত বক্তব্যের জেরে আওয়ামী লীগ থেকে সাবেক মন্ত্রী আবদুল লতিফ সিদ্দিকীকে বহিষ্কার করা হয়। ২০১৫ সালের ৩ সেপ্টেম্বর তার সংসদীয় আসন (টাঙ্গাইল-৪) শূন্য ঘোষণা করে গেজেট প্রকাশ হয়। এরপর ৩১ জানুয়ারি উপনির্বাচনের ভোট গ্রহণের দিন ঠিক করে তফসিল ঘোষণা করে নির্বাচন কমিশন।






মন্তব্য চালু নেই