মেইন ম্যেনু

রোববার শ্রীলঙ্কা যাচ্ছে শেখ রাসেল

এএফসি প্রেসিডেন্টস কাপে অংশ নিতে রোববার শ্রীলঙ্কার উদ্দেশ্যে ঢাকা ছাড়ছে শেখ রাসেল ক্রীড়া চক্র লিমিটেড। লিগে সাম্প্রতিক নৈপুণ্যে পিছিয়ে থাকলেও শ্রীলঙ্কা থেকে সাফল্য নিয়ে ফিরতে চায় শেখ রাসেল।
এএফসি প্রেসিডেন্টস কাপে তিনবার অংশ নিয়েছিল ঢাকা আবাহনী। পরের বার লিগের শিরোপা জিতে এই টুর্নামেন্টে খেলার সুযোগ পেয়েও যায় নি শেখ জামাল ধানমন্ডি ক্লাব। গেলো আসরের লিগ চ্যাম্পিয়ন হিসেবে এবার সুযোগ পেয়েছে শেখ রাসেল। তবে এখন পর্যন্ত কোন দলই এই প্রতিযোগিতার চূড়ান্ত পর্বে খেলার যোগ্যতা অর্জন করে ফিরতে পারে নি। এবার সেই অর্পূণতা ঘোচাতেই শ্রীলঙ্কা যাচ্ছে শেখ রাসেল।
অতীতের আবাহনীর হয়ে তিন বারই পেসিডেন্টস কাপে অংশ নেয়া বিপ্লব ভট্ট্রাচার্য্য এবার শেখ রাসেলের অধিনায়ক হিসেবে যাচ্ছেন শ্রীলঙ্কায়। এবার তার লক্ষ্য সম্পর্কে অধিনায়ক বিপ্লব ভট্টাচার্য্য বলেন, ‘এএফসি কাপে খেলতে যাওয়া এটাই আমার প্রথম নয়। এর আগেও তিনবার গিয়েছি। ঘরোয়া আসরে কিংবা লিগে কি হয়েছে, তা ভুলে যেতে চাই। দলের সবাই যদি নিজেদের সেরাটা দেয়, তাহলে অবশ্যই জিততে পারবো। আমাদের মনে রাখতে হবে আমরা শ্রীলংকা যাচ্ছি ১৬ কোটি মানুষের প্রতিনিধিত্ব করতে।’
গত মৌসুমের ট্রেবল জয়ী শেখ রাসেলের এবারের মৌসুমটা ভাল যাচ্ছে না। তবে শ্যীলঙ্কা থেকে সাফল্য নিয়ে ফিরতে প্রানান্ত চেষ্টা করবে দলের খেলোয়াড় ও কর্মকর্তারা। সংবাদ সম্মেলনে এমনটাই বলে গেলেন দলের কোচ ড্রাগান ডুকানোভিচ। শেখ রাসেলের মন্টেনেগ্রোর কোচ ড্রাগান ডুকানোভিচ বলেন,‘ঘরোয়া লিগ ও প্রেসিডেন্টন কাপ এক নয়। সেখানে আমাদের খেলোয়াড়রা সমস্ত দেশের প্রতিনিধিত্ব করবে। জয়ের জন্য আলাদা প্রেরণা কাজ করবে তাদের মধ্যে। আর জয়ের লক্ষ্যেই যাচ্ছি আমরা। জয় ছাড়া ভিন্ন কিছু ভাবলে সেখানে যাবার কোন কারণ দেখি না আমি।’
৭ মে শ্রীলঙ্কায় প্রথম ম্যাচে শেখ রাসেল মুখোমুখি হবে পাকিস্তানের কেআরএল এফসি ক্লাবের বিপক্ষে। এছাড়াও ৯ মে শ্রীলংকা এয়ারফোর্স এফসি ও ১১ মে ভুটানের উজিয়েন একাডেমি এফসির বিপক্ষে খেলবে তারা। প্রতিযোগিতায় ১১ দল তিনটি গ্রুপে ভাগ হয়ে খেলবে। তিন গ্রুপ থেকে ২ দল সুযোগ পাবে মূল পর্বে খেলার।






মন্তব্য চালু নেই