মেইন ম্যেনু

রিকশা কিনতে সন্তানকে বিক্রি করতে চাইল বাবা, পেটাল গ্রামবাসী

কিনতে চান রিকশা আর সেজন্য বিক্রি করতে চান নিজের সন্তানকেই! এমনই এক নির্মম পিতার খোঁজ মিলল ভারতের পূর্ব মেদিনীপুরে নিজের ছ’মাসের শিশু সন্তানকে বিক্রি করে তার বদলে রিকশা কিনতে চাইলেন এক ব্যক্তি। ঘটনা প্রকাশ্যে আসতেই স্থানীয়দের ক্ষোভের শিকার হন তিনি। শিশু বিক্রির চেষ্টার অপরাধে প্রবল মারধর করা হয় ওই ব্যক্তিকে। হলদিয়ার পূর্ব শ্রীকৃষ্ণপুরের ঘটনা।

ঘরে সদ্যজাত দুই যমজ শিশুপুত্র। টানাটানির সংসারে নুন আনতে পান্তা ফুরোয়, সেখানে দুই শিশুর বেবি ফুড ওষুধের খরচে জেরবার সদ্যজাত সন্তানদের বাবা। রোজগারের আশায় রিকশা চালাবার কথা ভাবেন তিনি। সেই মতো রিকশা কিনতে আমানত হিসেবে নিজের যমজ শিশু সন্তানের একটিকে বিক্রি করে দেওয়ার পরিকল্পনা করেন ওই ব্যক্তি।

কোলের শিশুকে বিক্রির কথা শুনে বাধা দেন ওই ব্যক্তির স্ত্রী। স্ত্রীর কথায় কর্ণপাত করা তো দূর উল্টে তাঁকে বেধড়ক মারধর করেন ওই ব্যক্তি। তাতে হার না মেনে সন্তানকে বাঁচাতে স্থানীয়দের কাছে সব কথা খুলে বলেন প্রহৃত মহিলা।

গোটা ঘটনা শুনে ক্ষিপ্ত হয়ে ওঠেন এলাকার মানুষ। ইলেকট্রিক পোস্টে বেঁধে রেখে অভিযুক্তকে বেদম মার মারেন প্রতিবেশীরা। যদিও স্থানীয়দের হাতে মার খেয়েও নিজের ভুল বুঝতে পারেননি যমজ সন্তানের বাবা। নিজের সন্তানকে বিক্রি করার মধ্যে কোন অপরাধ নেই বলেও সংবাদ মাধ্যমের ক্যামেরার সামনে দাবী করেন তিনি। ঘটনার কথা পুলিশকে জানিয়ে অভিযুক্তকে তাদের হাতে তুলে দেন স্থানীয়রা।






মন্তব্য চালু নেই