মেইন ম্যেনু

রাণীশংকৈল যুবলীগ নির্বাচনে প্রার্থী কারা হচ্ছেন?

সফিকুল ইসলাম শিল্পী, রাণীশংকৈল প্রতিনিধি : ঠাকুরগাঁয়ের রাণীশংকৈল উপজেলায় ত্রি-বার্ষিক সম্মেলন হতে যাচ্ছে ১লা ফেব্র“য়ারী। নির্বাচনকে ঘিরে যুবলীগের নেতা কর্মীদের মাঝে ব্যস্ততা দেখা যাচ্ছে রাজনীতির মাঠে। সম্মেলনে প্রধান অতিথি হিসাবে থাকছেন- খালিদ মাহমুদ চৌধুরী- এমপি, সাংগঠনিক সম্পাদক, বাংলাদেশ আ’লীগ। বিশেষ অতিথি হিসাবে থাকছেন আলহাজ্ব দবিরুল ইসলাম এমপি, মোঃ সাদেক কুরাঈশী চেয়ারম্যান জেলা পরিষদ ঠাকুরগাঁও, সেলিনা জাহান লিটা এমপি-৩০১, ইমদাদুল হক সাবেক এমপি, ইমরান হোসেন খান, সাংগঠনিক সম্পাদক বাংলাদেশ আওয়ামী-যুবলীগ, অরুনাংশু দত্ত টিটো, সভাপতি- বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ, ঠাকুরগাঁও সদর উপজেলা শাখা, সইদুল হক- সভাপতি, রানীশংকৈল উপজেলা আ’লীগ, তাজ উদ্দীন- ভাপপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক, রাণীশংকৈল উপজেলা আ’লীগ, জাহাঙ্গীর আলম সরকার- সভাপতি, পৌর আ’লীগ, রানীশংকেল, সাঞ্চালক হিসাবে থাকছেন- আলমগীর সরকার- পৌর মেয়র রানীশংকৈল, প্রধান বক্ত হিসাবে থাকছেন- আব্দুল মজিদ আপেল ঠাকুরগাঁও সাধারণ সম্পাদক, জেলা আওয়ামীযুবলীগ প্রমুখ। দীর্ঘ দিন অপেক্ষা প্রহর গুনে ঠাকুরগাঁয়ের রানীশংকেলে নির্বাচন হতে যাচ্ছে নির্বাচন ঘিরে ব্যস্থতা বেড়েছে শহর ও গ্রামের নেতা কর্মীদের আর ফেসবুকে তৈরি হচ্ছে নতুন নতুন ডিজাইনে প্রার্থীদের ছবি সহ নতুন নতুন পোস্টার। নির্বাচনটি ঘিরে প্রার্থী হচ্ছেন- সভাপতি আলমগীর সরকার এবং সাধারণ সম্পাদক শাহনেওয়াজ মোস্তাফিজুর, রমজান আলী, টাইগার ও সাবু সহ আরো অনেকের নাম শুনা যাচ্ছে। সভাপতি বিগত দিনের রাজ পথের লড়াকু সৈনিক হিসাবে এ এলাকার মানুষের প্রিয় মুখ বর্তমান মেয়র আলমগীর সরকার একাই প্রতিদন্ডীতা করছেন। এখন পর্যন্ত সভাপতি হিসাবে আর কেউ মুখ খুলছেন না। আ’লীগের একজন নেতা বলেন- নির্বাচন ঘিরে প্রত্যেক প্রার্থী ভোটারদের বাড়ী বাড়ী দৌড়াচ্ছেন। চলছে আগাম শুভেচ্ছা। জমে উঠেছে নির্বাচনী মাঠ রাণীশংকৈল বাসী একটি নিরপেক্ষ সম্মেলন চাই। যোগ্য প্রার্থীরা যেন যোগ্যতা অনুসারে নিজেদের জায়গা পায়। কারণ হিসাবে বিগত দিনের উপজেলা আ’লীগ কার্যকরী কমিটিতে যোগ্যহীন নেতাদের ভারে যোগ্য রাজনীতিবিদরা হারিয়ে যাচ্ছেন বলে মন্তব্য করেন দলের একজন বয়োজৈষ্ঠ নেতা। তিনি বলেন, আ’লীগে সব সময় তৃণমূল নেতাদের প্রাধান্য দিয়ে যাচ্ছেন প্রধান মন্ত্রি ও আ’লীগ সভানেত্রী শেখ হাসিনা। বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগের ইতিহাস, বাংলাদেশ স্বাধীনতা ও মুক্তি যদ্ধের মূল মন্ত্র গণতন্ত্র। অসম্প্রদায়ীক বাংলাদেশ আত্মনির্ভরশীল অর্থনীতি গড়ে তোলা এবং যুবসমাজের ন্যায্য অধিকার সমূহ প্রতিষ্ঠার লক্ষে ১৯৭২ সালের ১১ নভেম্বর জাতির জনক শেখ মুজিবর রহমানের নির্দেশে এদেশের যুব আন্দোলনের পথিকৃত প্রতিষ্ঠা করেছেন। বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগের সাবির্ক প্রচেষ্টায় মাননীয় প্রধান মন্ত্রি রাষ্ট্রনায়ক শেখ হাসিনার বিশ্ব শান্তি ‘মডেল’ জনগনের ক্ষমতায়ন’ আজ সারা বিম্ভে স্বীকৃত ৪০ বছরের উদ্দীপ্ত তরুন বাংলাদেশ আওয়ামীযুবলীগ জনগনের ক্ষমতাকে কাজে লাগিয়ে যাচ্ছে আগামীর সোনার বাংলা বিনির্মানে এমনটি বলেন- স্থানীয় একজন প্রবীন ও মেধা রাজনৈতিক নেতা।






মন্তব্য চালু নেই