মেইন ম্যেনু

রাজীব গান্ধী হত্যার ‘বিস্ফোরক তথ্য’ সিআইএ গোপন রিপোর্টে

এটাই সত্যি! বিশ্বাস করুন আর নাই করুন। শ্রীপেদামবুদুরে এক নির্বাচনী প্রচারসভায় আত্মঘাতী বোমায় তার শরীর ছিন্নভিন্ন হয়ে যাওয়ার, ৫ বছর আগেই সতর্ক করেছিল ইউনাইটেড স্টেট সেন্ট্রাল ইনটেলিজেন্স বা সিআইএ।

ভারতের সাবেক প্রধানমন্ত্রী রাজীব গান্ধীকে যে হত্যা করা হতে পারে, তা বেশ আগেই টের পেয়েছিল মার্কিন গুপ্তচর সংস্থা৷ সেন্ট্রাল ইনটেলিজেন্সি এজেন্সি বা সিআইএ-র প্রকাশিত একটি রিপোর্ট থেকে সম্প্রতি সামনে এল এই তথ্য৷ পূর্ণাঙ্গ রিপোর্টটির কী শিরোনাম ছিল তা অবশ্য জানা যায়নি৷

তবে সেখানে স্পষ্টতই উল্লেখ করা আছে যে, আততায়ীদের হাতে নিহত হতে পারেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী রাজীব গান্ধী৷ এই আশঙ্কা প্রকাশ করা হয়েছিল ১৯৮৬ সালে৷ অর্থাৎ রাজীব হত্যার ঠিক পাঁচ বছর আগে৷ ভারত থেকে পাওয়া বিভিন্ন তথ্যের ভিত্তিতেই এই অনুমান ছিল মার্কিন গোয়েন্দাদের৷

মার্চ মাসে প্রকাশিত রিপোর্টি তৈরি করা হয়েছিল সে বছরের জানুয়ারি মাসে৷ দেখা যাচ্ছে, রিপোর্টের শিরোনাম হিসেবে দেওয়া আছে, ‘ইন্ডিয়া আফটার রাজীভ…’৷ শিরোনামে হত্যার প্রসঙ্গটি নেই৷ কিন্তু রিপোর্টের প্রথমেই উল্লেখ আছে, অন্তত একবার আততায়ীদের হাতে আক্রান্ত হওয়ার সম্ভাবনা ছিল ভারতের প্রধানমন্ত্রীর৷ সেই সময়কার বিভিন্ন চরমপন্থী গোষ্ঠীদের কথাও উল্লেখ করা ছিল৷ এর ঠিক পাঁচ বছর পর তামিলনাড়ুতে নিহত হন রাজীব গান্ধী৷

২৩ পাতার ওই রিপোর্টে উঠে এসেছিল পি ভি নরসিমা রাও এবং ভি পি সিংয়ের নামও৷ অন্তর্বর্তী দায়িত্ব তাদের হাতে যেতে পারে বলেও অনুমান করা হয়েছিল৷ অবশ্য বেশ কিছু অংশ ডিলিট করে দিয়েই রিপোর্টটি সামনে আনা হয়েছে৷ ফলত আরও কী বিস্ফোরক তথ্য ওই রিপোর্টে ছিল, তা অজানাই থেকে গিয়েছে৷






মন্তব্য চালু নেই