মেইন ম্যেনু

মাওলানা ফারুকী হত্যা

‘রহস্যনারী’ আমেনা ২ দিন রিমান্ডে

রাজধানীর পূর্ব রাজাবাজারে চ্যানেল আইয়ের ‘কাফেলা’ অনুষ্ঠানের উপস্থাপক মাওলানা নুরুল ইসলাম ফারুকীকে গলা কেটে হত্যার ঘটনায় আটক রহস্যময়ী মাহমুদা খাতুন ওরফে আমেনা ওরফে আসমা (৪৩) ও শরিফুল ইসলামকে (৩৫) ২ দিন করে রিমান্ডে নিয়েছে পুলিশ।
রোববার বিকেলে মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট মো. ওয়ায়েছ কুরুনি খান চৌধুরীর আদালত শুনানি শেষে এ রিমান্ড মঞ্জুর করেন।
এর আগে এদিন এই দুই আসামিকে কড়া নিরাপত্তায় আদালতে হাজির করে ৭ দিনের রিমান্ড আবেদন করে ডিবি পুলিশ।
শনিবার সকাল সাড়ে ৯টার দিকে নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জের নোয়াপাড়া থেকে ‘রহস্যনারী’ মাহমুদা আক্তার ওরফে আমেনা ওরফে আসমাকে আটক করে পুলিশ। এসময় শরিফুল ইসলামকেও আটক করা হয়।
ঢাকা মহানগর পুলিশের তেজগাঁও বিভাগের উপ-কমিশনার বিপ্লব কুমার সরকার জানান, তথ্য প্রযুক্তির ব্যবহার এবং গোয়েন্দা নজরধারীর মাধ্যমে সন্দেহজনক নারী আমেনাকে আটক করা হয়েছে। শনিবার সকাল সাড়ে ৯টার দিকে নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জ থানা পুলিশের সহায়তায় নোয়াপাড়ারার একটি বাড়ি থেকে মাহমুদা আক্তার ওরফে আমেনা ওরফে আসমাকে আটক করা হয়।
ডিসি বিপ্লব কুমার জানান, মাওলানা ফারুকী হত্যার পর এ নারীকে ঘিরে রহস্যের সৃষ্টি হয়েছে। ঘটনার দিন বিকেলে এ নারী ফারুকীর বাসায় এসে নিজের নাম আসমা বলে দাবি করেন এবং কিছু সময় সেখানে অবস্থান করেন। ফারুকীর দ্বিতীয় স্ত্রীসহ স্বজনরা দাবি করেছেন বোরকা পরা ওই নারীর আচরণ ছিল সন্দেহজনক।
উল্লেখ্য, ১৭৪ পূর্ব রাজাবাজার মুন্সীবাড়ীর একটি চার তলা ভবনের দুই তলায় দ্বিতীয় স্ত্রীর পরিবার নিয়ে থাকতেন মাওলানা ফারুকী। গত বুধবার রাত সাড়ে ৮টার দিকে হজে যাওয়ার কথা বলে দুই জন তার সঙ্গে সাক্ষাৎ করতে আসেন। এরপর ১৫/২০ মিনিট পর আরো তিনজন ভক্ত পরিচয় দিয়ে বাসায় আসেন। কিছুক্ষণ পর এরা অস্ত্রের মুখে স্ত্রী-সন্তানদের ও পরিবারের অন্য সদস্যদের একটা কক্ষে আটকে রেখে ডাইনিং রুমে ফরুকীকে গলাকেটে হত্যা করে চলে যায়।
এছাড়াও এ ঘটনায় জড়িত থাকার সন্দেহে ইউসুফ (৩০) নামে একজনকে কুমিল্লার চৌদ্দগ্রাম থেকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। শনিবার রাত পৌনে ৮টার দিকে চৌদ্দগ্রাম থানা পুলিশ তাকে গ্রেপ্তার করে। ইউসুফের বাড়ি চৌদ্দগ্রামের নোয়াপাড়া গ্রামে। তিনি মৃত টুকু মিয়ার ছেলে।






মন্তব্য চালু নেই