মেইন ম্যেনু

রমনা বটমূলে বোমা হামলার ১৩ বছর পর মামলার রায় ১৬ জুন

বহুল আলোচিত রমনা বটমূলে বোমা হামলা মামলার রায় ঘটনার ১৩ বছর পর আগামী ১৬ জুন রায় ঘোষণা করা হবে।

বুধবার ঢাকার দ্বিতীয় অতিরিক্ত মহানগর দায়রা জজ রুহুল আমিন নির্ধারিত যুক্তি তর্কের শুনানি শেষে রায় ঘোষণার এই তারিখ ঠিক করেন।

ফলে চাঞ্চল্যকর ওই হত্যাকাণ্ডের ঘটনার মামলায় ১৩ বছর পর রায় ঘোষণা হতে যাচ্ছে। এর আগে এদিন আসামিপক্ষের আইনজীবীরা যুক্তিতর্কের শুনানি শেষে করেন।

আসামিপক্ষ অ্যাডভোকেট টিএম আকবর, জসিম উদ্দিন, ফারুক আহমেদ শুনানি করেন। অ্যাডভোকেট টিএম আকবর তার আসামি মাওলানা আকবর হোসেনকে নির্দোষ দাবি করে খালাস প্রার্থনা করেন। অপর আইনজীবী জসিমউদ্দিন কোন আসামির বিরুদ্ধে রাষ্ট্রপক্ষ অভিযোগ প্রমাণে সমর্থ হননি উল্লেখ করে সকল আসামির খালাস প্রার্থনা করেন।

অন্যদিকে রাষ্ট্রপক্ষে অতিরিক্ত পাবলিক প্রসিকিউটর জাহিদ হোসেন সরদার সকল আসামির বিরুদ্ধে অভিযোগ সন্দেহাতীতভাবে প্রমাণিত হয়েছে উল্লেখ করে সকল আসামির সর্বোচ্চ শাস্তি মৃত্যুদণ্ড প্রার্থনা করেন।

শুনানিকালে মামলার ১৪ আসামির মধ্যে কারাগারে থাকা মুফতি আব্দুল হান্নানসহ ৯ আসামিকে আদালতে হাজির করা হয়।

উল্লেখ্য, ২০০১ সালের ১৪ এপ্রিল ১ বৈশাখ ছায়ানটের বর্ষবরণ অনুষ্ঠান চলাকালে জঙ্গীদের বোমা হামলায় ১০ ব্যক্তি নিহত হন। এরপর ২০০৮ সালের ২৯ নভেম্বর হুজি নেতা মুফতি আব্দুল হান্নানসহ ১৪ জনকে অভিযুক্ত করে আদালতে চার্জশিট দাখিল হয়।

মামলার ১৪ আসামির মধ্যে মুফতি আব্দুল হান্নান, আরিফ হাসান সুমন, শাহাদত উল্লাহ ওরফে জুয়েল, হাফেজ মাওলানা আবু তাহের, মাওলানা আ. রউফ, মাওলানা সাব্বির ওরফে আব্দুল হান্নান সাব্বির, মাওলানা শওকত ওসমান ওরফে শেখ ফরিদ ও হাফেজ মাওলানা ইয়াহিয়া কারাগারে আছেন।

মাওলানা আকবর হোসাইন ওরফে হেলালউদ্দিন জামিনে আছেন। এছাড়া আসামি আলহাজ্ব মাওলানা মো. তাজউদ্দিন, হাফেজ জাহাঙ্গীর আলম বদর, মাওলানা আবু বকর ওরফে হাফেজ সেলিম হাওলাদার, মুফতি শফিকুর রহমান, ও মুফতি আব্দুল হাই পলাতক আছেন।



« (পূর্বের সংবাদ)



মন্তব্য চালু নেই