মেইন ম্যেনু

যে টেস্ট ম্যাচের স্থায়িত্ব মাত্র ৫৫ মিনিট!

১৯৯৮ সালের ২৯ শে জানুয়ারি জ্যামাইকার স্যাবাইনা পার্কে ঘটেছিল ক্রিকেট ইতিহাসের অন্যরকম অদ্ভুত একটি ঘটনা। ওয়েস্ট ইন্ডিজ-ইংল্যান্ডের মধ্যকার ছয় টেস্ট ম্যাচ সিরিজের প্রথমটি হয় এই জ্যামাইকাতে। কিন্তু সেই টেস্টে মোটের ওপর খেলা হয়েছিল মাত্র ৬১ বল। সময়ের দিক থেকে হিসাব করলে যার স্থায়িত্ব ছিল মাত্র ৫৫ মিনিট।

সেই টেস্টের ২৬ বল খেলে সেদিন গুরুতর আহত হন এই ইংল্যান্ডের উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যান আলেক স্টুয়ার্ট। ততক্ষণে উইকেটের বেশ কয়েক জায়গায় ইতোমধ্যেই গর্ত হয়ে গিয়েছে। অধিনায়ক মাইকেল আর্থারটন এরপরই মাঠে ঢুকে পড়েন। আম্পায়ারের সঙ্গে কথা বলেন তিনি। এরপরই পরিত্যক্ত হয়ে যায় সেই ম্যাচটি। খারাপ পিচের কারণে ম্যাচ পরিত্যক্ত হওয়ার ঘটনা ইতিহাসে এটিই প্রথম।

তখনকার ভয়ংকর পেসার ওয়ালশ-অ্যামব্রোসদের সুবিধা দিতে পেস সহায়ক উইকেট বানায় ওয়েস্ট ইন্ডিজ। আর এই কারণে পিচে প্রচুর পানি ব্যবহার করেন কিউরেটররা। কিন্তু শেষ পর্যন্ত মাঠ ঝেলার জন্য প্রস্তুত না হলেও খেলতে নামে দুদল। প্রথম ওভারেই মাইক আর্থারটন বুঝতে পারেন পিচে সমস্যা রয়েছে। এরপর পিচে বড় বড় ফাটল দেখা দিলে মাঠে ঢোকেন ম্যাচ রেফারি। উইকেটের চেহারা দেখে ম্যাচ পরিত্যক্ত ঘোষণা করেন তিনি।

এরপর ফের ২০০৯ সালে ওয়েস্ট ইন্ডিজেই এমন ঘটনা আবার ঘটে। সেবার ম্যাচের স্থায়িত্ব ছিল আরও কম। মাত্র ১০ বল মাঠে গড়িয়েছিল। এরপর ২০০ সালের ২৭ ডিসেম্বরে ওয়ানডেতেও ঘটে এমন ঘটনা। সেবার ভারতের দিল্লির ফিরোজ শাহ স্টেডিয়ামে ভারতের বিপক্ষে ২৩ ওভার ব্যাটিং করার পর খারাপ পিচের কারণে ম্যাচটি পরিত্যক্ত ঘোষণা করা হয়।






মন্তব্য চালু নেই