মেইন ম্যেনু

যশোর ডাকাতি সংঘঠিত তিন ডাকাত আটক

যশোর অফিস: গভীর রাতে যশোর শহরের ঘোপ সেন্ট্রাল রোডস্থ বাবলুর বাড়ির ভাড়াটিয়া সেবিকা রেহেনা পারভীন ওরফে সাবানার কক্ষে ডাকাতি সংঘঠিত হয়েছে। ডাকাতেরা অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে নগদ ১ লাখ ৪৫ হাজার টাকা ও ৩ ভরি ওজনের স্বর্ণালংকর ও মোবাইল ছিনিয়ে নেয়ার পর টহল পুলিশের হাতে ৩ দস্যু আটক হয়েছে।এ ঘটনায় দস্যুতা আইনে মামলা দায়ের করা হয়েছে। আটককৃতরা হচ্ছে,খুলনা ডুমুরিয়া উপজেলা এলাকার রেজাউল শেখ’র পুত্র বাবুল শেখ,সোনাডাঙ্গা থানা এলাকার ঘোড়া বস্তির শাহজাহানের পুত্র রবি ও খুলনা খানজাহান আলীর উপজেলা বাদামতলা গ্রামের মৃত ইনছান শেখ’র পুত্র হাসান শেখ।মামলা বিবারনে জানাগেছে,যশোর সদর উপজেলা ছোট শেখহাটি গ্রামের আব্দুল গনি মুন্সীর কন্যা বর্তমানে ঘোপ সেন্ট্রাল রোডস্থ বাবলুর বাড়ির ভাড়াটিয়া একতা হাসপাতালের সেবিকা রেহেনা পারভীন ওরফে সাবানা সোমবার রাত সাড়ে ১১ টায় তার কর্মস্থল থেকে ভাড়া বাড়িতে গিয়ে ঘুমিয়ে পড়ে। প্রকৃতির ডাকে সাড়া দিয়ে উঠে মঙ্গলবার রাত আনুমানিক ৩ টার সময় ঘুমাতে গিয়ে দেখতে পান ঘরের মধ্যে ৩ দস্যু ধারালো অস্ত্র নিয়ে তাকে জিম্মি করে। দস্যুরা ঘরের দক্ষিণ পাশের জানালার গ্রীল কেটে ভিতরে ঢুকে। পরে গলায় ধারালো বটি ঠেকিয়ে আলমীরা ও ওয়্যারড্রপের চাবি নিয়ে আলমীরা খুলে নগদ ৯০ হাজার টাকা,৫০ হাজার টাকা ও ওয়্যার ড্রপের নীচে থাকা নগদ ৫ হাজার টাকা ও স্বর্ণের বিভিন্ন ৩ ভরি অলংকারসহ ২ লাখ ৯৫ হাজার টাকার মালামাল নিয়ে সটকে পড়ে। দস্যুরা যাবার সময় সাবানার ৮ হাজার টাকা মূল্যের মোবাইল ফোন ছিনিয়ে নেয়।সাবানা এজাহারে বলেছেন,৩জন দস্যু ঘরের মধ্যে বাকী একজন বাইরে ছিল।দস্যুরা টাকা ও মালামাল নিয়ে শেখহাটি বাবতলা তলা ব্রীজের পাশ দিয়ে যাবার সময় টহল পুলিশের সামনে পড়ে। পরবর্তীতে দৌড়ে পালাবার কালে স্থানীয় লোকজনের সহায়তায় উল্লেখিত ৩ দুস্য আটক হয়।এ সময় তাদের নিকট হতে নগদ ৩৪ হাজার ২৫০ টাকা উদ্ধার করা হয়।






মন্তব্য চালু নেই