মেইন ম্যেনু

যশোর জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান শাহ্ হাদীউজ্জামান আর নেই

যশোর জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান, বঙ্গবন্ধুর ঘনিষ্ঠ সহচর ও মুক্তিযুদ্ধের সংগঠক বর্ষীয়ান আওয়ামী লীগ নেতা শাহ্ হাদীউজ্জামান (৭৬) মারা গেছেন। (ইন্নালিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাহি রাজিউন)। রাজধানীর স্কয়ার হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রোববার রাত ১টায় মারা যান তিনি। মৃত্যুকালে তিনি স্ত্রী, ৩ ছেলে ও এক মেয়েসহ অসংখ্য আত্মীয়স্বজন ও গুণগ্রাহী রেখে গেছেন। সোমবার বাদ আসর নওয়াপাড়ায় তার জানাজা শেষে পীরবাড়ির পারিবারিক গোরস্থানে দাফন করা হবে।

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন যশোর-২ আসনের সংসদ সদস্য অ্যাডভোকেট মনিরুল ইসলাম।

জানা গেছে, শাহ্ হাদীউজ্জামান প্রাদেশিক পরিষদ ও বাংলাদেশ জাতীয় সংসদে ৫ বার এমপি নির্বাচিত হন। বর্তমান সরকার প্রথম দফায় জেলা পরিষদে তাকে প্রশাসক মনোনীত করে। এ বছর প্রথমবার অনুষ্ঠিত জেলা পরিষদের নির্বাচনে তিনি বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন। গত ২৫ জানুয়ারি তার জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান জীবনের অভিষেক হয়। এর মাত্র ৫ দিন পর ৩০ জানুয়ারি তিনি যশোরের নওয়াপাড়ার বাড়িতে গুরুতর অসুস্থ হয়ে পড়েন। তাকে খুলনার একটি বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে পরীক্ষা-নিরীক্ষার পর চিকিৎসকরা তাকে দ্রুত ঢাকায় স্থানান্তরের পরামর্শ দেন। পরদিন তাকে হেলিকপ্টারে ঢাকায় নিয়ে স্কয়ার হাসপাতালের আইসিইউতে ভর্তি করা হয়।

সেখান থেকে তাকে সিঙ্গাপুরে চিকিৎসার জন্য নেওয়া হয়। কিন্তু অবস্থার উন্নতি না হওয়ায় রোববার রাতে তাকে দেশে ফিরিয়ে এনে স্কয়ার হাসপাতালে নেওয়া হয়। সেখানে লাইফ সাপোর্ট খুলে ফেলার পর চিকিৎসকরা তাকে মৃত ঘোষণা করেন।






মন্তব্য চালু নেই