মেইন ম্যেনু

যশোরে জোর করে বিয়ে করার অভিযোগে, যুবতীসহ দুইজন আটক

যশোর অফিস:যশোর সদরের কিসমত নওয়াপাড়া এলাকার গোলাম মোস্তফার যুবতী কন্যা মুন্নি মোবাইল ফোনের মাধ্যমে অনার্স পড়–য়া ছাত্র নাহিদকে বাড়িতে ডেকে নেয়। এ সময় মেয়ে পক্ষ তাকে জোর পুর্বক বিয়ে করতে বাধ্য করে। সে যশোর সদরের হামিদপুর গ্রামের গ্রামের মুঞ্জুর রশিদের ছেলে। এ ঘটনায় নাহিদ থানায় অভিযোগ দায়ের করে। এ অভিযোগের ভিত্তিতে যুবতি মুন্নি ও তার ভাই আল-আমিন ওরফে শান্তকে আটক করেছে।
পুলিশ জানায় মঙ্গলবার সকালে নাহিদকে মুন্নি মোবাইল ফোনের মাধ্যমে ডেকে নিয়ে আসে। পরবর্তীতে ঘরের মধ্যে আটকে রেখে কাজী ডেকে বিয়ে সম্পন্ন করে। নাহিদের পরিবারের পক্ষ থেকে থানায় খবর দেয়া হলে উপশহর ফাঁড়ির ইনচার্জ এসআই মিরাজ মোসাদ্দেক মোল্যা দুপুরে কিসমত নওয়া পাড়ার গোলাম মোস্তফার বাড়ি থেকে নাহিদকে উদ্ধার করে এবং মুন্নি ও তার সহোদর আল-আমিন ওরফে শান্তকেও আটক করে।






মন্তব্য চালু নেই