মেইন ম্যেনু

যশোরের যৌতুকের দাবিতে মাহফুজা খাতুন নামে এক গৃহবধূকে পিটিয়ে হত্যা

বেনাপোল প্রতিনিধি : যশোরের চৌগাছা উপজেলায় মাহফুজা খাতুন (১৯) নামে এক গৃহবধূকে পিটিয়ে ও গলায় ফাঁস দিয়ে হত্যা করা হয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে। ঘটনাটি ঘটেছে মংগলবার রাতে চৌগাছা উপজেলার আন্দুলিয়া গ্রামে।

মাহফুজা খাতুন আন্দুলিয়া গ্রামের মহসিন আলীর স্ত্রী এবং ঝিকরগাছা উপজেলার শিমুলিয়া গ্রামের গফ্ফার বিশ্বাসের মেয়ে।

নিহত মাহফুজার পিতা গফ্ফার বিশ্বাস বলেন, ‘প্রায় নয় মাস আগে মাহফুজাকে মহসিনের সাথে বিয়ে দেওয়া হয়। বিয়ের পরে জামাইকে নগদ ২৫ হাজার টাকা, সোনার আংটি, বাইসাইকেলসহ বিভিন্ন মালামাল যৌতুক হিসেবে দেওয়া হয়। এরপর জামাই আরো ৫০ হাজার টাকা যৌতুক চায়। দাবি করা যৌতুকের টাকা দিতে না পারায় মহসিন স্ত্রী মাহফুজাকে শারীরিক এবং মানসিক নির্যাতন করতো। এ নিয়ে একাধিকবার শালিশ বৈঠকও হয়েছে।’

তিনি অভিযোগ করেন, গত মঙ্গলবার রাতে আবার জামাই যৌতুকের জন্য চাপ দিতে থাকে তার মেয়েকে। মাহফুজা যৌতুকের টাকা এনে দিতে অস্বীকার করায় প্রথমে তাকে মারপিট করে পরে শ্বাসরোধ করে হত্যা করে লাশ ঘরের আড়ার সঙ্গে ঝুলিয়ে দেয়া হয়। মাহফুজার পিঠসহ শরীরের বিভিন্ন জায়গায় আঘাতের চিহ্ন আছে বলে তিনি দাবি করেন।

খবর পেয়ে পুলিশ লাশ উদ্ধার করে যশোর জেনারেল হাসপাতাল মর্গে প্রেরন করেন।

চৌগাছা থানার ওসি মসিউর রহমান বলেন, মাহফুজা খাতুন নামে এক গৃহবধূর লাশ উদ্ধার করা হেযছে। লাশ উদ্ধার করে মর্গে পাঠানো হয়েছে। এটা হত্যা না আত্মহত্যা ময়নাতদšত রিপোর্ট না পাওয়া পর্যšত বলা যাবে না।’
্এ ঘটনায় থানায় একটি অপমৃত্যু মামলা হয়েছে।






মন্তব্য চালু নেই