মেইন ম্যেনু

মোদির তিন প্রধান সেনাপতি

দিলিপ মজুমদার, কলকাতা প্রতিনিধি :
নরেন্দ্র মোদির অপেক্ষাকৃত ‘ছোট’ মন্ত্রিসভায় স্বরাষ্ট্র রাজনাথ সিং, পররাষ্ট্র সুষমা স্বরাজ ও অর্থ মন্ত্রণালয়ের দায়িত্ব পেতে চলেছেন অরুণ জেটলি। গুরুত্বের দিক থেকে প্রধানমন্ত্রীর পর এই তিনটি মন্ত্রণালয়কেই ধরা হয়। দায়িত্ব পাওয়া তিন জনেরই রয়েছে লম্বা রাজনৈতিক ক্যারিয়ার। একাধিকবার মন্ত্রীর দায়িত্বও পালন করেছেন সবাই। নিচে পাঠকদের জন্য এই তিন মন্ত্রীর সংক্ষিপ্ত পরিচিতি তুলে ধরা হল।

সুষমা স্বরাজ
সদ্য মেয়াদ শেষ হওয়া লোকসভায় বিজেপি নেতৃত্বাধীন বিরোধীদলের নেতা ছিলেন। বিজেপিতে মোদি বিরোধী বলে পরিচিতি আছে তার। লোকসভা নির্বাচনের আগে মোদির নেতৃত্বের বিরোধিতাও করেছিলেন তিনি। তারপরেও প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির পরের পদ, পররাষ্ট্রমন্ত্রীর দায়িত্ব পেয়েছেন। ছাত্র অবস্থা থেকে রাজনীতির সঙ্গে জড়িত সুষমা স্বরাজের রাজনৈতিক ক্যারিয়ার বেশ লম্বা। এর আগে বাজপেয়ি সরকারে স্বাস্থ্য এবং তথ্য ও প্রযুক্তি মন্ত্রণালয়ের দায়িত্ব পালন করেছেন। সাতবার লোকসভা সদস্য এবং তিনবার বিধান সভার সদস্য নির্বাচিত হয়েছেন। মাত্র ২৫ বছর বয়সে হরিয়ানার স্থানীয় সরকারের মন্ত্রী হিসেবেও দায়িত্ব পালন করেছেন। এছাড়া দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী হিসেবেও দায়িত্ব পালন করেছেন সুষমা।

অরুণ জেটলি
৬১ বছর বয়স্ক অরুণ জেটলি ২০১৪ সালের লোকসভা নির্বাচনেই প্রথমবারের মত প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন। তবে অমৃতসরে নভোজিৎ সিং সিধুকে সরিয়ে নির্বাচন করে কংগ্রেসের প্রার্থী আমৃন্দর সিংহের কাছে পরাজিত হন। এর আগে অটল বিহারী বাজেপেয়ি সরকারের বাণিজ্যমন্ত্রীর দায়িত্ব পালন করেছেন। ২০০৯ সালে স্বল্প সময়ের জন্য বিরোধী দলীয় নেতার দায়িত্বও পালন করেন তিনি। এছাড়াও ২০০৬ সাল থেকে রাজ্য সভায় সদস্য।

রাজনাথ সিং
বিজেপির সভাপতি রাজনাথ সিং পাচ্ছেন স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের দায়িত্ব। মন্ত্রী হিসেবে শপথ নেয়ার পরে দলের গুরুত্বপূর্ণ এই পদটি তাকে ছাড়তে হবে। লোকসভা নির্বাচনে উত্তর প্রদেশে বিজেপির ব্যাপক সাফল্যের পেছনের কারিগর তিনি। দু বছরের জন্য উত্তর প্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব পালন করা রাজনাথ সিং ২০১৪ সালের লোকসভা নির্বাচনে লক্ষ্ণৌ আসন থেকে নির্বাচিত হয়েছেন। এর আগে অটল বিহারী বাজেপেয়ি সরকারেও পরিবহন ও কৃষি মন্ত্রণালয়ের দায়িত্বে ছিলেন তিনি।






মন্তব্য চালু নেই