মেইন ম্যেনু

মেসির গোলে সেমিফাইনালে বার্সেলোনা

নিজেদের মাঠে অনুষ্ঠিত ফিরতি লেগের ম্যাচে রিয়াল সোসিদাদকে ৫-২ গোলের ব্যবধানে হারিয়ে কোপা দেল রের সেমি-ফাইনালে পৌঁছেছে বার্সেলোনা।

ক্যাম্প ন্যুতে অনুষ্ঠিত ম্যাচে ওই জয়ের ফলে দুই ম্যাচে ৬-২ ব্যবধানে এগিয়ে থেকে শেষ চার নিশ্চিত করল কাতালনরা। ১ম লেগে ১-০ গোলে এগিয়ে ছিল লুইস এনরিখের শিষ্যরা।

ম্যাচের প্রথমার্ধে গোল করে বার্সাকে এগিয়ে দেন দেনিস সুয়ারেজ। আইবারের বিপক্ষে বার্সেলোনার হোয়ে গোলের খাতায় নাম লেখানো এই ফুটবলার এদিন বার্সার হয়ে সমাপনী গোলটিও আদায় করেছেন।

দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতে পেনাল্টি থেকে গোল করে বার্সাকে দ্বিগুণ ব্যবধানে এগিয়ে দেন আর্জেন্টাইন সুপার স্টার লিওনেল মেসি।

এরপর লুইস সুয়ারেজ ও ও আর্দা তুরান গোলের দেখা পেলেও এদিন গোলহীন ছিলেন আগের ম্যাচে পেনাল্টি থেকে গোল করে বার্সাকে জয় পাইয়ে দেয়া ব্রাজিলীয় সুপার স্টার নেইমার। এদিন অবশ্য সফরকারী দলের হয়ে দুটি গোল করেছেন জুয়ানমি ও হোসে উইলিয়ান।

ম্যাচের ২৭তম মিনিটে স্বাগতিক দলকে গোল করে এগিয়ে দেন দেনিশ সুয়ারেজ। লুইস সুয়ারেজের জোগানের বলটি সময়মতই কাজে লাগান তিনি। ফলে ১-০ গোলের লীড নিয়েই বিরতিতে যায় বার্সেলোনা।

দ্বিতীয়ার্ধে ৫৫তম মিনিটে পেনাল্টি থেকে গোল করে ব্যবধান বাড়ান আর্জেন্টিনার ফুটবল সুপার স্টার মেসি। নেইমারকে ফাউল করার কারণে স্পট কিকের নির্দেশ দিয়েছিলেন কর্তব্যরত রেফারি। ৭ মিনিট যেতেই হোচট খায় স্বাগতিকরা।

জুয়ানমির অসাধারণ এক গোলে ব্যবধান কমিয়ে লড়াইয়ে ফেরার ইঙ্গিত দেয় সোসিদাদ। যদিও পরের মিনিটে ফের গোল করে ব্যবধান আগের স্থানে ফিরিয়ে দেন উরুগুয়ে তারকা লুইস সুয়ারেজ। মেসির বানিয়ে দেয়া বলটি দক্ষতার সঙ্গেই জালে জড়িয়ে দেন তিনি।

৭৩তম মিনিটে দর্শনীয় হেডে ফের গোল পরিশোধ করে ম্যাচটি তাতিয়ে দেন হোসে উইলিয়ান। ৮০তম মিনিটে মেসির বাড়ানো বল থেকে গোল করে বার্সাকে এগিয়ে দেন নেইমারের বদলি হিসেবে মাঠে নামা তুরান।

দুই মিনিট পর আর্জেন্টাইন প্লে মেকার মেসির যোগানের বল জালে পাঠিয়ে ম্যাচের ফিনিশিং টাচ একে দেন দেনিস। এটি ছিল স্প্যানিশ এই মিডফিল্ডারের দ্বিতীয় গোল।






মন্তব্য চালু নেই