মেইন ম্যেনু

মাত্র এক মিনিটের এ অনুশীলনেই ফিট থাকুন!

ব্যস্ত নাগরিক জীবনে আমাদের নানা কারণে এখন শরীর ফিট রাখা যেন অসম্ভব হয়ে উঠেছে। ফলে বহু মানুষকেই দেখা যাচ্ছে নানা ধরনের রোগে আক্রান্ত হতে। তবে সামান্য কিছু শারীরিক অনুশীলনেও এ সমস্যা দূর করা সম্ভব বলে মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা। সম্প্রতি তেমনই একটি উপায়ের কথা জানালেন বিশেষজ্ঞরা। এক প্রতিবেদনে বিষয়টি জানিয়েছে ইনডিপেনডেন্ট।

শারীরিক অনুশীলন বা ব্যায়াম ছাড়াই যারা শরীর ফিট রাখার কথা ভাবেন তারা বোকার স্বর্গে বাস করেন। কারণ শরীরকে সচল রাখার বিকল্প নেই। কিন্তু শরীর ফিট রাখার সময় কোথায়?

ব্যায়াম কিংবা শারীরিক অনুশীলনের ক্ষেত্রে বিশেষজ্ঞরা অনেকেই বলেন, প্রতিদিন আধাঘণ্টা করে ব্যায়াম করতে হবে। এটি হতে পারে জগিং, দৌড় কিংবা অন্য কোনো কার্ডিও।

আধাঘণ্টা অনুশীলনের বিকল্প কি আছে? আপনি যদি নানা সমস্যার কারণে প্রতিদিন পর্যাপ্ত শারীরিক অনুশীলন করতে না পারেন তাহলে একটি বিকল্প উপায়ের কথা ভাবতে পারেন। একে বলা হচ্ছে হাই ইনটেনসিটি ট্রেইনিং (হিট)। এটি এমন এক অনুশীলন, যেখানে দেহের ৮০ শতাংশ কাজ করে। এ অনুশীলনের বিস্তারিত জানান, যুক্তরাজ্যর লংবরো ইউনিভার্সিটির প্রফেসর জেমি টিমসন।

কিভাবে করতে হবে হিট অনুশীলন?
এ অনুশীলনের জন্য একটি স্টেশনারি সাইকেল প্রয়োজন হবে। অনুশীলনের জন্য এ সাইকেল ব্যবহৃত হয়। এগুলো রাস্তায় চলে না, শুধু থেমে থাকা সাইকেলের মতো চালাতে হয়। তবে আপনি চাইলে বাস্তবে সাইকেলও ব্যবহার করতে পারেন।

এ বিষয়ে প্রফেসর টিমসন বলেন, আপনার প্রতি সপ্তাহে তিন দিন অনুশীলন করতে হবে। আর এ জন্য তিনবার ২০ সেকেন্ড করে অনুশীলন করতে হবে। প্রতিবার অনুশীলনের পর দুই মিনিট করে বিশ্রাম করতে হবে।

প্রথমেই আপনার সর্বোচ্চ শক্তি দিয়ে ২০ সেকেন্ড সাইকেলে প্যাডেল মারতে হবে। এরপর দুই মিনিট বিশ্রাম নিয়ে আবার একই কাজ করতে হবে।
এভাবে তিনবার ২০ সেকেন্ড করে অনুশীলন করতে আপনার সময় লাগবে মোট এক মিনিট। আর মাঝখানে দুই মিনিট করে বিশ্রাম নিতে ভুলবেন না।

বিশেষজ্ঞরা বলছেন, এ অনুশীলন এতই সহজ ও নিরাপদ যে, এরপর আপনার হৃৎস্পন্দন মাপতেও হবে না। তবে এ অনুশীলন থেকে আরও ভালো রেজাল্ট পাওয়ার জন্য আপনার মূল অনুশীলনের আগে কিছুক্ষণ ওয়ার্ম আপ অনুশীলন করে নিলে ভালো হয়।






মন্তব্য চালু নেই