মেইন ম্যেনু

মরুভূমিতে হঠাৎ রহস্যময় হ্রদ

তিউনিসিয়ার মরুভূমিতে হঠাৎ একটি রহস্যজনক হ্রদের সৃষ্টি হয়েছে। খরাপীড়িত সে দেশে এ হ্রদ নিয়ে রীতিমতো শোরগোল পড়ে গেছে।

সম্প্রতি প্রাকৃতিকভাবে সৃষ্টি এ হ্রদকে ‘গাসফা বিচ’ নাম দিয়েছেন স্থানীয় বাসিন্দারা।

কীভাবে খাঁ খাঁ মরুভূমির মধ্যে এই হ্রদ তৈরি হল তা নিয়ে স্থানীয় প্রশাসনের পক্ষ থেকে এখনও কোনো ব্যাখ্যা দেয়া হয়নি। এক দল মেষপালক মরুভূমি পেরোনোর সময় এই রহস্যজনক হ্রদ আবিষ্কার করেন।

মরুভূমির মধ্যে হ্রদের জন্মকে কেউ বলছেন অলৌকিক, কেউ আবার বলছেন অভিশাপ। ভূতত্ত্ববিদদের মতে, ভূগর্ভের নিচে কোনও প্লেট সরে যাওয়ার ফলেই মাটির নিচের পানি সম্ভবত ওপরে উঠে এসেছে।

তবে ওই হ্রদের পানিতে নামতে সতর্ক করা হয়েছে প্রশাসনের পক্ষ থেকে। কারণ হিসেবে বলা হয়েছে, হ্রদের পানির উৎপত্তি না জেনে পানিতে নামা বিপজ্জনক হতে পারে। এমনকি হতে পারে ক্যান্সারও।

কিন্তু ৪০ ডিগ্রি গরমের দেশে সে কথা শুনতে নারাজ উৎসাহীরা। দৈনিক ছ’শোরও বেশি উৎসাহী পর্যটক এই হ্রদে নেমে পড়ছেন স্নান করতে। প্রশাসনের তরফে এখনও স্নানে বা হ্রদের জলে নামায় কোনও নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়নি। তিউনিসিয়ার দৈনিক সংবাদপত্রের সাংবাদিক সৈয়দের বক্তব্য, পানির উৎস যেহেতু অজানা, তাই ওই পানিতে নামলে ক্যান্সারের আশংকাও উড়িয়ে দেওয়া যাচ্ছে না।






মন্তব্য চালু নেই