মেইন ম্যেনু

ভ্যাট ১৫ শতাংশই থাকছে : অর্থমন্ত্রী

অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত বলেছেন, আগামী অর্থবছরের বাজেটের আগেই ১৫ শতাংশ হার রেখে নতুন ভ্যাট আইন বাস্তবায়ন করা হবে। জাতীয় রাজস্ব বোর্ড (এনবিআর) এটা নিয়ে নিয়মিত কাজ করছে, ভ্যাট আইন নিয়ে আমি ব্যবসায়ীদের সঙ্গে আরো একবার বৈঠক করবো।

মঙ্গলবার সচিবালয়ে অর্থমন্ত্রীর সঙ্গে ফুড অ্যান্ড এগ্রিকালচারাল অর্গানাইজেশন অফ ইউনাইটেড ন্যাশনস এর ঢাকায় নবনিযুক্ত মিজ সুসান লরাইন লুটজের নের্তৃত্বে একটি প্রতিনিধিদল দেখা করে। পরে তিনি সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে এক প্রশ্নের জবাবে এ কথা বলেন।

অর্থমন্ত্রী বলেন, ব্যবসায়ীরা ভ্যাট ৭ শতাংশ করার দাবি জানিয়েছেন, আমি ১৫ শতাংশ করার পক্ষেই এখনো আছি। আশা করি ব্যবসায়ীরা এটা মেনে নেবে। আগে তারা অভ্যস্ত হোক, পরবর্তী সময়ে ভিন্ন ভিন্ন হারে ভ্যাট নির্ধারণ করার চিন্তা-ভাবনা করা যাবে।

নতুন ভ্যাট আইন নিয়ে ব্যবসায়ীরা ধর্মঘটসহ বিভিন্ন কর্মসূচি পালন করে। একইসঙ্গে তারা বৃহত্তর আন্দোলনে যাওয়ার হুমকি দেয়। এতকিছুর পরও অর্থমন্ত্রী ভ্যাট ১৫ শতাংশ রাখার বিষয়ে শক্ত অবস্থান নেন।

বেসরকারি গবেষণা প্রতিষ্ঠান সেন্টার ফর পলিসি ডায়ালগ (সিপিডি) সম্প্রতি এক অনুষ্ঠানে চলতি অর্থবছর রাজস্ব আদায় লক্ষ্যমাত্রার চেয়ে ৪০ হাজার কোটি টাকা কম হতে পারে বলে আশঙ্কা প্রকাশ করে। বিষয়টি অর্থমন্ত্রীর দৃষ্টি আকর্ষণ করা হয়। এ প্রসঙ্গে অর্থমন্ত্রী বলেন, আট বছরে কখনো এমনটা হয়নি। এবারো হবে না। সিপিডি কোথা থেকে এ তথ্য পায় তারাই জানে, আমি জানি না। রাজস্ব আদায়ের লক্ষ্যমাত্রা সবসময় অর্জিত হয় না। কিছুটা কম হয়।

তিনি বলেন, এনবিআর চেষ্টা করছে লক্ষ্যমাত্রা অর্জন করার জন্যে। আশা করছি তারা এটা পারবে। এবার আশার বিষয় হচ্ছে করদাতার সংখ্যা উল্লেখযোগ্য হাবে বেড়েছে। আর এদের মধ্যে বেশিরভাগই তরুণ।

ফাও’র প্রতিনিধির সাক্ষাৎ প্রসঙ্গে অর্থমন্ত্রী বলেন, ফাও বাংলাদেশের উন্নয়ন সহযোগীদের মধ্যে অন্যতম। ফাও প্রতিষ্ঠার পর থেকেই আমাদের অর্থনৈতিক উন্নয়নে বিভিন্ন খাতে সহযোগিতা দিয়ে যাচ্ছে। বিশেষ করে কৃষি, পশুসম্পদ, বনায়ন, পরিবেশ, প্রাকৃতিক সম্পদ, পল্লী উন্নয়নসহ বিভিন্ন খাতে সহযোগিতা দিয়ে যাচ্ছে।

ফাও’র নতুন প্রতিনিধি সম্পর্কে তিনি বলেন, সুসান লরাইন লুটজ আমার সঙ্গে দেখা করে বাংলাদেশে ফাও’র অর্থায়নে যেসব প্রকল্প চলছে সেগুলোর অগ্রগতি নিয়ে কথা বলেছেন। একইসঙ্গে তাদের সহযোগিতা অব্যাহত রাখার আশ্বাস দিয়েছেন।






মন্তব্য চালু নেই