মেইন ম্যেনু

ভাষা সৈনিকের চিকিৎসা খরচ রাষ্ট্রের, অস্ত্রোপচার সফল

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় (বিএসএমএমইউ) হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ভাষা সৈনিক আবদুল মতিনের চিকিৎসার সকল খরচ সরকার বহন করবে বলে জানিয়েছেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম।

বুধবার দুপুরে বিএসএমএমইউয়ে ভাষা সৈনিককে দেখে হাসপাতাল থেকে বের হওয়ার সময় সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে এ কথা জানান মন্ত্রী।

এরআগে দুপুর ২টা ২০ মিনিটে আবদুল মতিনকে দেখতে বিএসএমএমইউতে যান মন্ত্রী। সেখানে ভাষা সৈনিকের স্ত্রী গুলবাদুন নেসা মনিকাকে সমবেদনা জানিয়ে তাকে ধৈর্য্য ধরতে বলেন মন্ত্রী। আবদুল মতিনের চিকিৎসা সঠিকভাবে হচ্ছে বলেও মনিকাকে আশ্বস্ত করেন নাসিম।

আবদুল মতিনকে চিকিৎসার প্রয়োজনে দেশের বাইরে নেয়া হবে কি না- সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী বলেন, ‘প্রয়োজন হলে অবশ্যই নেয়া হবে। তবে এখনও সেই প্রয়োজনীয়তা আসেনি।’

এরআগে সকালে ভাষা সৈনিকের মাথায় সফল অস্ত্রোপচার করেন বিএসএমএমইউয়ের চিকিৎসকরা। বুধবার সকাল সাড়ে ১১টায় শুরু হয় অস্ত্রপচার। শেষ হয় দুপুর পৌনে ১টায়।

এই অস্ত্রোপচার সম্পন্ন হওয়ার পর গুলবদন নেসা মনিকা বলেন, ‘লোকাল অ্যানেস্থেশিয়া দেয়ার মাধ্যমে মাথার যে অংশে ব্লাড হেমারেজ হয়েছিল সেখান থেকে জমে থাকা ব্লাড তুলে আনতে সক্ষম হয়েছেন চিকিৎসকেরা।’

বিএসএমএমইউয়ের নিউরোসার্জারি বিভাগের চেয়ারম্যান ডা. এম আফজাল হোসেন বলেন, ‘ভাষাসৈনিক আবদুল মতিনের অনেক পুরনো একটা ক্ষত ছিল। সেখান থেকেই রক্তক্ষরণ হচ্ছিলো। তার অপারেশনটা একটু বিপজ্জনক ছিল। তবে অপারেশন সফলভাবে শেষ হয়েছে।’

তিনি আরও জানান, ভাষা সৈনিককে আপাতত আইসিইউতে রাখা হয়েছে। ৪৮ ঘণ্টার আগে কিছু বলা যাচ্ছে না। তার ডায়াবেটিস ও হার্নিয়া রয়েছে, বাইপাস অপারেশন করা হয়েছে। এছাড়া মস্তিষ্কে ক্ষতও আছে। ফলে অবস্থার সার্বিক উন্নতির জন্য কিছুটা সময় লাগবে।

মন্ত্রী সাংবাদিকদের বলেন, ‘এই অপারেশটা বেশ ঝুঁকিপূর্ণ ছিল। আমাদের চিকিৎসকরা সেই ঝুঁকির বিষয়টি মাথায় রেখে অপারেশন করেছেন।’



(পরের সংবাদ) »



মন্তব্য চালু নেই