মেইন ম্যেনু

বড়হাটে সোয়াতের গুলিবর্ষণ, গ্রেনেড বিস্ফোরণ

মৌলভীবাজারের নাসিরপুরে জঙ্গি আস্তানায় সফল অভিযান শেষে পৌর শহরের বড়হাট আস্তানায় শুক্রবার সকালে অভিযান শুরু করেছেন পুলিশের বিশেষায়িত বাহিনী সোয়াতের সদস্যরা।

এ অভিযানের নাম দেওয়া হয়েছে ‘অপারেশন ম্যাক্সিমাস’। দুপুর ১২টা ৪০ মিনিট থেকে সোয়াতের সদস্যরা জঙ্গি আস্তানাকে লক্ষ্য করে একের পর এক গুলি করতে থাকেন। এক পর্যায়ে ১২টা ৫৩ মিনিটে জঙ্গি আস্তানায় একটি গ্রেনেড বিস্ফোরিত হয়। এ সময় কয়ছর নামের এক পুলিশ সদস্য গুরুতর আহত হয়েছেন। তাকে মৌলভীবাজার সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

এর আগে শুক্রবার সকালে পুরো এলাকা ঘিরে অভিযান শুরু করেন সোয়াত সদস্যরা। তাদের সঙ্গে র‌্যাব, পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিসের সদস্যরা রয়েছেন। অভিযান শুরুর পর সকাল ৭টার দিকে ওই জঙ্গি আস্তানার আশপাশ থেকে গুলির শব্দ শোনা গেছে। তবে আস্তানা থেকে জঙ্গি গুলি ছুড়েছে নাকি আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যরা গুলি ছুড়েছেন তা নিশ্চিত হওয়া যায়নি।

এদিকে শুক্রবার বেলা ১১টার দিকে পুলিশের কাউন্টার টেররিজম ইউনিটের প্রধান মনিরুল ইসলাম সাংবাদিকদের বলেন, ‘বড়হাটের জঙ্গি আস্তানায় অপারেশন চালাতে সময় লাগবে। কারণ, আমরা জানতে পেরেছি জঙ্গি আস্তানায় প্রচুর বিস্ফোরক আছে। এ ছাড়া এলাকাটি ঘন বসতিপূর্ণ, আশপাশে অনেক বড় বড় ভবন রয়েছে।’

আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর ঘিরে রাখা এ জঙ্গি আস্তানাস্থল বৃহস্পতিবার রাতে পরিদর্শন করে অভিযানের ছক তৈরি করেন সোয়াত টিমের কর্মকর্তারা। সোয়াত সদস্যদের অভিযানের খবর পেয়ে স্থানীয় অনেকে বাড়ি ছেড়ে নিরাপদ জায়গায় সরে গেছেন। মৌলভীবাজার-সিলেট আঞ্চলিক সড়কে যান চলাচল বন্ধ করে দেয়া হয়েছে।






মন্তব্য চালু নেই