মেইন ম্যেনু

ব্যাথা না নিয়েই ভারতের খেলবেন মুশফিক, চিকিৎসক যা বললেন

কিউদের বিপক্ষে শেষভাগে দলে মুশফিক না থাকার খেসারত দিয়েছে বাংলাদেশ। ব্যাথা নিয়েই আগামী নয় ফেব্রুয়ারির ম্যাচে মাঠে নামবেন তিনি।

আঙুলে কোনো চিড় না থাকলেও মুশফিকুর রহিমের ব্যথা পুরোপুরি উপশম হবে না ভারতের বিপক্ষে হায়দ্রাবাদ টেস্টের আগে। ব্যাথা নিয়েই আগামী নয় ফেব্রুয়ারির ম্যাচে মাঠে নামবেন তিনি।

বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) প্রধান চিকিৎসক দেবাশীষ চৌধুরী বলেছেন, ‘মুশফিকের হাতের ইনজুরির পরে ওখানে এক্সরে এবং সিটি স্ক্যান করা হয়েছে। কোনো ধরনের চিড় কিংবা ফ্র্যাকচারের অস্তিত্ব পাওয়া যায়নি। কিন্তু আঙুলের ইনজুরি তাই ওখানে ব্যথা থাকবে।

কেননা বার বার ওখানে বলের আঘাত লাগবে তাই শুকাতে সময় লাগবে। কিন্তু যেহেতু ফ্র্যাকচার নেই সেহেতু আমরা ধরে নিচ্ছি ওর ব্যথা কমতে কয়েকটা দিন সময় লাগবে। এই কয়েকটা দিনের মধ্যে আমরা ওর কিছু ফিজিওথেরাপি ও অনুশীলন শুরু করে দিব। আশা করছি ভারত সিরিজে সে পুরোপুরি ব্যথামুক্ত না হতে পারলেও মোটামুটি ব্যথামুক্ত হয়েও যাবে।’

জানা গেল, এরকম ব্যাথ্যা সেরে ওঠার জন্য বিশ্রামের কোনো বিকল্প নেই। দেবাশীষ চৌধুরী বলেন, ‘এ ধরনের আঘাত সারতে ৫-৬ সপ্তাহ সময় লাগে। এই সময়টা পার হতে ফেব্রুয়ারির তৃতীয় সপ্তাহ পার হয়ে যাবে। শুকানোর পরে আমরা স্ক্যান করে দেখব যে ঠিকমতো ভালো হয়েছে কিনা। যদি হয়ে থাকে তাহলে পুনর্বাসনের কাজ শুরু করব এবং শ্রীলঙ্কা সফরের জন্য ওকে প্রস্তুত করবো।’

নিউজিল্যান্ড সিরিজ থেকে ফিরে আপাতত বিশ্রামে থাকা ক্রিকেটাররা ভারতে রওনা দেবেন আগামী এক ফ্রেব্রুয়ারি। তিন ফেব্রুয়ারি হায়দ্রাবাদেই তিনদিনের প্রস্তুতি ম্যাচ।






মন্তব্য চালু নেই