মেইন ম্যেনু

‘বেশি করে মাছ খান, স্ট্রোকের ঝুঁকি কমান’

মাছ খেলে স্ট্রোকের ঝুঁকি কমে। স?প্রতি প্রকাশিত আন্তর্জাতিক এক বিশ্লেষণ প্রতিবেদন থেকে এ তথ্য জানা গেছে। যুক্তরাষ্ট্র, ইউরোপ, জাপান এবং চীনে সম্পন্ন প্রায় ১৫টি গবেষণা থেকে বিশ্লেষণধর্মী এ প্রতিবেদনটি উপস্থাপন করা হয়েছে। ওই প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, যারা একেবারেই মাছ খায় না বা কম খায় তাদের চেয়ে যারা সপ্তাহে দুই বা তিনবার মাছ খায় তাদের স্ট্রোকের ঝুঁকি কম।

সুইডেনের ক্যারোলিনস্কা ইন্সটিটিউটের ‘স্ট্রোক’ জার্নালে প্রকাশিত প্রতিবেদনের গবেষক সুসানা লারসন ও নিকোলা অর্সিনি জানান, মাছে থাকা ওমেগা-৩ নামের এক ধরনের ফ্যাটি এসিড রক্ত চাপ ও কোলেস্টেরলের ওপর ইতিবাচক প্রভাবের মাধ্যমে স্ট্রোকের ঝুঁকি কমাতে পারে।
গবেষণাগুলেতে অংশগ্রহণকারীরা কত দিন পর পর মাছ খায় সে বিষয় জিজ্ঞাসা করা হয় এবং তাদের স্ট্রোক হয় কিনা ৪ থেকে ৩০ বছর পর্যন্ত তা পর্যবেক্ষণ করা হয়।
হার্ভার্ড স্কুল অব পাবলিক হেলথের দারিউস মোজাফ্ফারিয়ানেরও গবেষণাও এই প্রতিবেদনে বিশ্লেষিত হয়েছে। মোজাফ্ফারিয়ান বলেন, ” মাছকে উপকারী পরিপোষক বলেই আমার মনে হয়। বিশেষ করে মাছে থাকা ওমেগা-৩ স্ট্রোকের ঝুঁকি কমাতে পারে।”
তিনি আরো বলেন, “সপ্তাহে দুই থেকে তিনবার মাছ খেলেই এ সুবিধাটা পাওয়া যাবে বলে গবেষণাগুলো থেকে ইঙ্গিত পাওয়া গেছে।”
মোজাফ্ফারিয়ান আরো জানান, মাছে থাকা ভিটামিন-ডি, সেলেনিয়াম এবং বিভিন্ন ধরনের আমিষও স্ট্রোকের ঝুঁকি কমাতে সহায়তা করে।
গবেষণাগুলোতে ৩০ থেকে ১০৩ বছর বয়সের প্রায় ৪ লাখ মানুষের ওপর পরিচালিত গবেষণাগুলোর উপাত্ত থেকে বিশ্লেষণটি করা হয়েছে।
এতে দেখা যায়, যারা সপ্তাহে অতিরিক্ত তিনবার মাছ খায় তাদের স্ট্রোকের ঝুঁকি ৬ শতাংশ কমে যায়। এছাড়া যারা বেশির ভাগ সময়ই মাছ খায় অন্যদের চেয়ে তাদের ঝুঁকি ১২ শতাংশ কম।
তবে যারা ভাজা মাছ বা মাছের স্যান্ডউইচ খায় তাদের স্ট্রোকের ঝুঁকি কমার সম্ভাবনা নেই বলেও এতে জানানো হয়।






মন্তব্য চালু নেই