মেইন ম্যেনু

বেক্সিট সমঝোতায় রাজি ইইউর ২৭ দেশ

অবশেষে বেক্সিট সমঝোতায় রাজি হয়েছে ইউরোপীয় ইউনিয়নের (ইইউ) ২৭ দেশ।

বিবিসি অনলাইনের ব্রেকিং নিউজে শনিবার এ তথ্য জানানো হয়েছে।

ব্রেক্সিট নির্দেশনা অনুযায়ী যুক্তরাজ্যের সঙ্গে সমঝোতায় ইইউর দেশগুলো রাজি হওয়ায় বিশ্বের সবচেয়ে বড় এই আঞ্চলিক জোট থেকে দেশটির বের হয়ে যাওয়ার পথ নির্বিঘ্ন হবে বলে মনে করা হচ্ছে।

ইউরোপীয় কাউন্সিল প্রধান ডোনাল্ড টাস্ক বলেছেন, ব্রেক্সিটের নিষ্পত্তি করতে ইইউভুক্ত দেশগুলোর ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করতে হবে। ব্রেক্সিট নিয়ে আলোচনা করার জন্য ব্রাসেলসে একত্রিত হওয়া ইইউর ২৭টি দেশকে নিয়ে বিশেষ সম্মেলনের প্রাক্কালে তিনি এ বক্তব্য দিলেন। ওই সম্মেলনে সভাপতিত্ব করবেন টাস্ক। যদিও যুক্তরাজ্য এতে অংশ নেয়নি।

শনিবার সকালে ব্রাসেলস পৌঁছে টাস্ক সাংবাদিকদের বলেন, ব্রেক্সিট বিষয়ে আলোচনা সফল করতে ইইউর ২৭ সদস্যকে এক থাকতে হবে। আর তা যুক্তরাজ্যের জন্যও ভালো হবে। তিনি আরও বলেন, ইইউর সব অঙ্গসংগঠন ও সদস্য দেশ এ বিষয়ে পূর্ণ সহায়তা দিচ্ছে।

এর আগে ইইউ নেতাদের কাছে পাঠানো চিঠিতে টাস্ক বলেন, যুক্তরাজ্যের সঙ্গ ইইউর ভবিষ্যৎ সম্পর্ক নিয়ে আলোচনা করতে হলে প্রথমে তিনটি বিষয় নিষ্পত্তি করতে হবে। সেগুলো হলো ‘নাগরিক, অর্থ ও আয়ারল্যান্ড’।

জার্মান চ্যান্সেলর মের্কেলের প্রতিধ্বনি করে টাস্ক তার চিঠিতে ওই তিনটি অগ্রাধিকারের কথা উল্লেখ করেন, ব্রিটেননিবাসী ইইউ নাগরিকদের ব্যাপারে নিশ্চয়তা দান, ব্রিটেনের ইইউ সদস্য থাকাকালীন সময়ের অর্থনৈতিক বাধ্যবাধকতা পূরণ এবং রিপাবলিক অব আয়ারল্যান্ড ও উত্তর আয়ারল্যান্ডের মধ্যকার সীমান্তের উন্মুক্ততা বিষয়ে সমঝোতা অর্জন।

ইইউ বারবার বলছে, ভবিষ্যতে ব্রিটেনের সঙ্গ নতুন বাণিজ্য সম্পর্কে আলোচনা করতে হলে প্রথমে ব্রিটেনের ইইউ ত্যাগের বিষয়টির সুষ্ঠু সমাধান করতে হবে। কিন্তু ৮ জুনের নির্বাচনের আগে ব্রিটেন আনুষ্ঠানিক ব্রেক্সিট আলোচনায় অংশ নিচ্ছে না। তবে ব্রিটেন বলছে, তারা বাণিজ্য আলোচনা নিয়ে দের করতে চাচ্ছে না।






মন্তব্য চালু নেই