মেইন ম্যেনু

বুলবুল কোনঠাসা, বিএনপিতে অসন্তোষ

রাজশাহী সিটি করপোরেশনের মেয়র ও মহানগর যুবদলের আহ্বায়ক মোসাদ্দেক হোসেন বুলবুলকে বাদ দিয়ে মহানগর যুবদলের নতুন পূর্ণাঙ্গ কমিটি গঠন করা হয়েছে। শুধু তাই নয়, আগের কমিটির অনেককেই যুবদল থেকে বাদ দেয়া হয়েছে। এ নিয়ে রাজশাহী মহানগর বিএনপিতে অসন্তোষ দেখা দিয়েছে।

শনিবার বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব (দপ্তরের দায়িত্বপ্রাপ্ত) অ্যাডভোকেট রুহুল কবির রিজভী স্বাক্ষরিত কাগজ মহানগর বিএনপিতে এসে পৌঁছায়। নতুন অনুমোদিত নতুন কমিটিতে সভাপতি করা হয়েছে ওয়ালিউল হক রানা ও সাধারণ সম্পাদক করা হয়েছে আবুল হাসনাইন হিকলকে।

এদিকে মেয়র মোসাদ্দেক হোসেন বুলবুলকে রাজশাহী মহানগর বিএনপির সিনিয়র সহসভাপতি করা হয়েছে। আর মহানগর বিএনপির যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক করা হয়েছে আব্দুল্লাহ আল মাহমুদ সালাম বিপ্লব, মাইনুল ইসলামকে। এছাড়াও সাবেক যুব দলের সাধারণ সম্পাদক আসলাম সরকারকে রাজশাহী মহানগর বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক পদে নির্বাচিত করা হয়েছে।

এদিকে কমিটি নিয়ে রাজশাহী মহানগর বিএনপির মধ্যে অসন্তোষ দেখা দিয়েছে। শনিবার রাতেই মোবাইল ফোনে নতুন পদ প্রত্যাখান করেছেন আব্দুল্লাহ আল মাহমুদ সালাম বিপ্লব। মেয়র মোসাদ্দেক হোসেন বুলবুল নতুন পদ প্রত্যাখান করতে পারে বলে জানিয়েছে রাজশাহী মহানগর বিএনপির একটি নির্ভরযোগ্য সূত্র। অনেকেই বিষয়টিকে রাসিক মেয়রকে রাজনীতি থেকে নিষ্ক্রিয় করার কৌশল হিসেবে দেখছেন।

বিএনপির একটি নির্ভরযোগ্য সূত্র জানিয়েছে, রাজশাহী বিএনপির মূল চালিকাশক্তি হচ্ছে যুবদল। দীর্ঘদিন ধরে রাজশাহী সিটি করপোরেশনের মেয়র মোসাদ্দেক হোসেন বুলবুল রাজশাহী মহানগর যুবদলের দায়িত্বে ছিলেন ও বিএনপিকে সুসংগঠিত করে রেখেছিলেন। বিএনপির রাজনীতি থেকে মেয়র মোসাদ্দেক হোসেন বুলবুলকে অনেকটা নিষ্ক্রিয় করার জন্যই রাজনৈতিক প্রতিপক্ষের লোকজন এ কাজ করেছেন।

রাসিক মেয়রকে যে পদ দেয়া হয়েছে তা বুলবুল অনুসারীরা ভালো চোখে দেখছেন না। যেকোনো সময় মেয়র বুলবুল তার নতুন পদ প্রত্যাখান করতে পারেন বলে সূত্রটি জানায়।

যুবদলের নতুন পূর্ণাঙ্গ কমিটির অন্য সদস্যরা হলেন- সিনিয়র সহসভাপতি পদে ১৩ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর রবিউল আলমম মিনু। সহসভাপতি পদে বজলুল হক মন্টু, বেলাল হোসেন, শাহানুর ইসলাম মিঠু, রাশেদুল ইসলাম বাবু, শামসুল ইসলাম মিলু, সদর আলী, হুমায়ন, সোহরাব হোসেন শেখ, আব্দুল কুদ্দুস ডলার, আলাউদ্দিন প্রামাণিক, মনির হোসেন মনি, নুরুজ্জামান টিটু।

যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক পদে আশিকুজ্জামান আশিক, মুরাদ পারভেজ পিন্টু, আবুল কালাম আজাদ সুইট, শাহ মাইনুল হোসেন শান্ত, সুলতান, আবু আহমেদ লাল্টু, তোফায়েল হোসেন রাজু, ফেরদৌস ওয়াহেদ রনি, শাজাহান আলী, মাইনুল হক হারু, হেলাল, নুরুল ইসলাম নুরু, শামিম। সাংগঠনিক সম্পাদক করা হয়েছে মাহাফুজুর রহমান রিটন, সহসাংগঠনিক সম্পাদক পদে নির্বাচিত হয়েছেন মুকুল শেখ, আজিজুল, নাজমুল হক, ফাইজুল হক ফাহি।

উল্লেখ্য, সর্বশেষ ২০০৩ সালে মহানগর যুবদলের কাউন্সিল হয়। এ কাউন্সিলে দলের সভাপতি হন মোসাদ্দেক হোসেন বুলবুল ও সাধারণ সম্পাদক হন আসলাম সরকার। দীর্ঘ নয় বছর পর ২০১২ সালে সে কমিটি ভেঙে দিয়ে মোসাদ্দেক হোসেন বুলবুলকে আহ্বায়ক করা হয়। একই সঙ্গে তিন মাসের মধ্যে ওয়ার্ড কমিটি করে মহানগরের কাউন্সিল করার নির্দেশ দেয় দলের হাই কমান্ড।






মন্তব্য চালু নেই