মেইন ম্যেনু

বুদ্ধিজীবী কবরস্থানে চিরনিদ্রায় লাকী আখন্দ

রাজধানীর মিরপুর-১ বুদ্ধিজীবী কবরস্থানে চিরনিদ্রায় শায়িত হলেন মুক্তিযোদ্ধা ও কিংবদন্তি গানের মানুষ লাকী আখন্দ। আজ শনিবার (২২ এপ্রিল) বেলা ২টা ৪৫ মিনিটে বুদ্ধিজীবী কবরস্থান চত্বরে তৃতীয় নামাজে জানাজা শেষে তার মরদেহ সমাহিত করা হয়।

এসময় উপস্থিত ছিলেন সংগীতশিল্পী ফুয়াদ নাসের বাবু, লাবু রহমান, শায়েদ ছাড়াও লাকীর সংগীতাঙ্গনের দীর্ঘদিনের সহকর্মী ও আত্মীয়স্বজন। ঘটনাস্থলে লাকী আখন্দের মেয়ে মামিন্তি তার বাবা হারানোর শোকে বারবার মূর্ছা যাচ্ছিলেন।

এর আগে সকাল ১০টায় লাকী আখন্দের নিজস্ব বাসভবন সংলগ্ন আরমানিটোলা মাঠে প্রথম জানাজা অনুষ্ঠিত হয়। এরপর বেলা সাড়ে ১১টায় কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে গার্ড অব অনার প্রদান শেষে সর্বসাধারণ তাকে ফুল দিয়ে শুভেচ্ছা জানায়। এরপর বাদ জোহর ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় মসজিদে দ্বিতীয় জানাজা সম্পন্ন হয়।

দীর্ঘদিন দুরারোগ্য ব্যাধি ক্যান্সারে আক্রান্ত হয়ে শুক্রবার (২১ এপ্রিল) সন্ধ্যা ৭টা নাগাদ শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন লাকী আখান্দ। তার বয়স হয়েছিল ৬১ বছর।

লাকী আখন্দের উল্লেখযোগ্য গানের মধ্যে রয়েছে- ‘এই নীল মনিহার’, ‘আমায় ডেকো না’, ‘কবিতা পড়ার প্রহর এসেছে’, ‘যেখানে সীমান্ত তোমার’, ‘মামনিয়া, ‘বিতৃষ্ণা জীবনে আমার’, ‘কি করে বললে তুমি’, ‘লিখতে পারি না কোনও গান’, ‘ভালোবেসে চলে যেও না’ প্রভৃতি।






মন্তব্য চালু নেই