মেইন ম্যেনু

বিশ্বকাপের বলের মধ্যেই ক্যামেরা!

ক্রীড়াযজ্ঞে প্রযুক্তির আমদানি নতুন কিছু নয়। এজন্য বিভিন্ন খেলার উন্নয়নকল্পে প্রতিনিয়ত প্রযুক্তির ব্যবহার বাড়ছে। এরই ধারায় বাংলাদেশে অনুষ্ঠিত টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে অভিনব ‘স্প্যাম্প ওয়েব ক্যাম’ ও ‘লাইট সেনসেশন’ ব্যবহার করা হয়েছিল। আসন্ন ব্রাজিল বিশ্বকাপেও এর ছোঁয়া থাকছে। সেজন্য এবার ফুটবল মহাযজ্ঞ মাতাতে বলের মধ্যেই এবার ক্যামেরা সেট করা হয়েছে। যার নাম ‘ব্রাজুক্যাম’।

বিশ্বকাপের টিভি সম্প্রচারে আক্ষরিক ভাবে নতুন দৃষ্টিকোণ আমদানি করতে এ বার ফুটবলের মধ্যেই বসানো হয়েছে অত্যাধুনিক প্রযুক্তির হাই ডেফিনেশন ক্যামেরা। তাও একটা-দুটা নয়, ছয়-ছ’টা! যাতে মাঠের লড়াইয়ে একেবারে ৩৬০ ডিগ্রি অ্যাঙ্গেল থেকেও দেখানো যায়। ব্রাজিল বিশ্বকাপে যে ব্রাজুকা বল ব্যবহার হবে তার মধ্যেই এই ক্যামেরার কারিকুরি থাকায় দুইয়ের যোগে নামটা ব্রাজুক্যাম।

গত বিশ্বকাপের বল ‘জাবুলানি’ তীব্র সমালোচনার মুখে পড়েছিল হাল্কা ওজন আর বাতাসে ঠিকঠাক না ভাসার জন্য। বিশ্বকাপের বল নির্মাতা অ্যাডিডাসের তরফে অবশ্য দাবি করা হয়েছে ব্রাজুকা তেমন সমস্যা করবে না। বরং ছয়টি আলাদা প্যানেলের ব্যবহারে বিশেষ ধরনের নির্মাণ প্রযুক্তি আর বাইরের আস্তরণের কারণে বাতাসে এর নড়াচড়া অনেক বেশি উন্নত। বল গ্রিপ করাও অনেক সহজ হবে। তবে ব্রাজুকার আসল বাজিমাত ওই ছয়টি ক্যামেরাতেই!






মন্তব্য চালু নেই