মেইন ম্যেনু

‘বিদ্যুৎ-গ্যাসের মূল্য বৃদ্ধিতে জনদুর্ভোগ বাড়বে’

একসঙ্গে বিদ্যুৎ ও গ্যাসের মূল্য বৃদ্ধিতে জনজীবনে দুর্ভোগ বাড়বে বলে মন্তব্য করেছেন বিরোধীদলীয় নেতা রওশন এরশাদ এমপি।

শনিবার দুপুরে এক বিবৃতিতে তিনি বলেন, গ্যাস ও বিদ্যুতের দাম বৃদ্ধির কারণে জনগণ চরম দুর্ভোগে পড়বে। পরিবারের নিত্যব্যবহার্য গ্যাস ও বিদ্যুতের দাম বাড়ার সঙ্গে বাড়ছে দ্রব্যমূল্য, পরিবহন ব্যয়সহ জীবনযাত্রার সঙ্গে সংশ্লিষ্ট সবকিছুই। এতে করে বেশি ভোগাবে সীমিত আয়ের মানুষকে।

বিরোধী নেতা বলেন, বিদ্যুতের দাম বৃদ্ধির নেতিবাচক প্রভাব পড়বে ব্যবসা-বাণিজ্য ও বিনিয়োগে। বিশেষ করে দেশের সার্বিক অর্থনীতিতেও। বিদ্যুতের দাম বাড়ার কারণে দেশের সব পণ্যের উৎপাদন ব্যয় বেড়ে যাবে। আর এতে উদ্যোক্তারা বড় ধরণের ক্ষতির সম্মুখীন হবেন। এ ধরণের ঝুঁকি নিয়ে অনেকেই বিনিয়োগে আসতে চাইবেন না। ফলে নিরুৎসাহিত হবে বেসরকারি খাত।’ বিদ্যুতের দাম বৃদ্ধির সরকারি সিদ্ধান্ত বিনিয়োগবিরোধী বলেও মনে করেন রওশন।

সাবেক এ ফার্স্টলেডি বলেন, ‘আন্তর্জাতিক বাজারে জ্বালানি তেলের দাম ব্যাপকভাবে হ্রাসের পরিপ্রেক্ষিতে দেশে জ্বালানি তেল ও বিদ্যুতের দাম কমার আশা করেছিল মানুষ। অথচ বাংলাদেশ এনার্জি রেগুলেটরি কমিশন (বিইআরসি) গ্যাস ও বিদ্যুতের দাম না কমিয়ে মূলত জনআকাক্সক্ষার বিপরীত কাজ করেছে।

রওশন বলেন, সার্বিক সবকিছু বিবেচনা করে সরকারের উচিত হবে বিদ্যুৎ ও গ্যাসের দাম বৃদ্ধির সিদ্ধান্ত পুনর্বিবেচনা এবং একই সঙ্গে জ্বালানি তেলের দাম কমিয়ে আন্তর্জাতিক বাজারের সঙ্গে সঙ্গতিপূর্ণ করা।






মন্তব্য চালু নেই