মেইন ম্যেনু

বিচারের নামে আইসিসির নাটক!

আইসিসি (আন্তর্জাতিক ক্রিকেট কাউন্সিল) যে নখ-দন্তহীন সেটা আরেকবার দেখলো ক্রিকেট বিশ্ব।

ট্রেন্টব্রিজে ভারত-ইংল্যান্ডের মধ্যেকার প্রথম টেস্টে মাঠ থেকে বেরিয়ে যাওয়ার সময় জেমস অ্যান্ডারসন ও রবিন্দ্র জাদেজা কথার লড়াইয়ে জড়িয়ে পড়েছিলেন। দুই দেশের বোর্ড এ নিয়ে পাল্টাপাল্টি অভিযোগ করে আইসিসির কাছে। ফলে জাদেজার শাস্তি নির্ধারণ করা হয় ওই টেস্টের ম্যাচ ফি’র পঞ্চাশ শতাংশ।

শুক্রবার ছিল আরেক অভিযুক্ত অ্যান্ডারসনের শুনানি। কিন্তু সেখানে বিচারের নামে যা হলো সেটা গোটা ক্রিকেট দুনিয়ার জন্যই অশনি সংকেত। ধারণা করা হচ্ছিল জাদেজা কাণ্ডে দুই বা তারও বেশি টেস্টে নিষিদ্ধ হতে পারেন অ্যান্ডারসন! কিন্তু বিচারপতি গর্ডন লুইস অ্যান্ডারসনকে নির্দোষ বলে রায় দিলেন। সঙ্গে জানিয়ে দিলেন জাদেজারও কোন দোষ নেই।

তার মানে দু’জনই ছাড়া পেয়ে পাচ্ছেন। স্বাভাবিকভাবেই প্রশ্ন এসে যায়, দু’জনই যদি নির্দোষ হয় তাহলে এত কিছুর অবতারণা ঘটল কেন? তাহলে কী অ্যান্ডারসন-জাদেজা কেউ দোষ করেননি? অথচ তাদের বিরুদ্ধে লেভেল-থ্রি এবং লেভেল-টু অপরাধ ধরা হয়েছিল।

এই বিচার ক্রিকেটের বাকি দেশগুলোর কাছে অশুভ বার্তাই যে পৌঁছে দেবে তাতে সন্দেহ নেই। আইসিসি এক বিবৃতিতে বলেছে,‘ছয় ঘন্টা শুনানির পর বিচারক সিদ্ধান্ত দেন যে, জাদেজা-অ্যান্ডারসনের কেউ অপরাধ করেনি। সিদ্ধান্তটা নেওয়া হয়েছে বিভিন্ন সাক্ষ্য-প্রমাণের ভিত্তিতে।’






মন্তব্য চালু নেই