মেইন ম্যেনু

বাংলাদেশে বিদ্যুৎ রফতানি বাড়িয়েছে ভারত

বাংলাদেশে গত তিন বছরে ভারতের বিদ্যুৎ রফতানির পরিমাণ বৃদ্ধি পেয়েছে বলে জানিয়েছে সেদেশের বিদ্যুৎ মন্ত্রণালয়। বাংলাদেশ ছাড়া নেপাল ও মিয়ানমারে বর্তমানে ৫ হাজার ৭৯৮ ইউনিট বিদ্যুৎ রফতানি করছে নয়াদিল্লি।

এর মাধ্যমে এই প্রথম দেশটি বিদ্যুতের নেট আমদানিকারক হওয়া থেকে নেট রফতানিকারক দেশে পরিণত হয়েছে। বুধবার দেশটির সরকারি এক বিবৃতির বরাত দিয়ে বার্তাসংস্থা এএনআই এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানিয়েছে।

দেশটির বিদ্যুৎ মন্ত্রণালয়ের ওই বিবৃতিতে বলা হয়েছে, নেপাল, বাংলাদেশ, মিয়ানমারে আসন্ন আন্তঃসীমান্ত বিদ্যুৎ সরবরাহ লাইনের মাধ্যমে শুধুমাত্র বিদ্যুৎ বিক্রি বৃদ্ধি পাবে।

গত তিন বছরে বাংলাদেশে ভারতের বিদ্যুৎ রফতানির পরিমাণ বেড়েছে ২ দশমিক ৮ গুণ। একই সঙ্গে নেপালে বেড়েছে ২ দশমিক ৫ গুণ। আমদানির চেয়ে ভারতের বিদ্যুৎ রফতানির পরিমাণ ছিল ২১৩ মিলিয়ন ইউনিট।

২০১৩ সালের সেপ্টেম্বরে পশ্চিমবঙ্গের বহরমপুর সীমান্ত দিয়ে বাংলাদেশে বিদ্যুৎ রফতানি শুরু করে ভারত। পরে কুমিল্লা এবং ত্রিপুরার মধ্যে সূর্যমনিনগর আন্তঃসংযোগ দ্বিতীয় বিদ্যুৎ লাইন স্থাপনের মাধ্যমে বাংলাদেশে বিদ্যুৎ সরবরাহের পরিমাণ আরও বাড়িয়েছে নয়াদিল্লি।

বর্তমানে বাংলাদেশে ৬০০ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ রফতানি করছে ভারত। একই সঙ্গে নেপালে রফতানি করছে ১৯০ মেগাওয়াট। প্রতিবেশি দেশগুলোর মধ্যে বিদ্যুৎ রফতানি বাড়াতে ভারতের একাধিক আন্তঃসংযোগ বিদ্যুৎ লাইন স্থাপন পরিকল্পনা পাইপলাইনে রয়েছে।

অাগামী এপ্রিলে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ভারত সফরে বাংলাদেশ-ভারতের মধ্যে বিদ্যুৎ খাতে সহযোগিতা সংশ্লিষ্ট চুক্তি হতে পারে বলে প্রত্যাশা করা হচ্ছে। ৭ থেকে ১০ এপ্রিল রাষ্ট্রীয় সফরে ভারতে যাওয়ার কথা রয়েছে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার।






মন্তব্য চালু নেই