মেইন ম্যেনু

বলিউডের তারকা হলেও, তাঁরা ভারতীয় নাগরিক নন

দীপিকা পাডুকোন— ১৯৮৬ সালের জানুয়ারিতে এই বলিউড সেনসেশনের জন্ম হয়েছিল ডেনমার্কের কোপেনহেগেন শহরে।

আলিয়া ভট্ট— বর্তমান প্রজন্মের হার্টথ্রব তিনি। তাই ২০১৪ সালের ভোটদান করার জন্য তাঁকেই প্রচারের মুখ হিসেবে বাছা হয়েছিল। কিন্তু তিনি নিজে ব্রিটিশ পাসপোর্ট হোল্ডার, তাই এ দেশে ভোট দেওয়ার অধিকার তাঁর নেই।

অক্ষয় কুমার— কানাডা সরকার তাঁকে সে দেশের নাগরিকত্ব দিতে চাইলে, অক্ষয় তা গ্রহণ করেন। তা সত্ত্বেও তিনি ভারতীয় সিনে জগতের অতি প্রিয় তারকা, এবং জাতীয় পুরস্কারে ভূষিত।

অ্যামি জ্যাকসন— শুধুমাত্র বলিউডই নয়, দক্ষিণ ভারতের বেশ কিছু ছবিতেই দেখা গিয়েছে এই নীল নয়নাকে। কিন্ত, তিনি এ দেশের নাগরিক নন। তাঁর জন্ম ব্রিটেনে।

ইভলিন শর্মা— বলিউডে পা রেখেছিলেন দীপিকা-রণবীর কপূর অভিনীত ‘ইয়ে জাওয়ানি হেয় দিওয়ানি’ ছবি দিয়ে। কিন্তু তাঁর খ্যাতি আন্তর্জাতিক এক মডেল হিসেবে। ব্রিটেনের একটি ইরেজি ছবিতে অভিনয় করে সোজা চলে আসেন ভারতে। আদতে তিনি জার্মান নাগরিক।

ইমরান খান— সেই ছোট্ট বয়সে তিনি এ দেশে চলে আসেন। কিন্তু জন্ম মার্কিন দেশের উইসকনসিনে হওয়ার জন্য তাঁকে ভারতীয় নাগরিক বলা যাবে না।

ক্যাটরিনা কাইফ— ১০ বছরের বেশিই তিনি কাটিয়ে ফেলেছেন ভারতের হিন্দি ছবির জগতে। তা সত্ত্বেও এখনও তিনি ব্রিটিশ পাসপোর্ট-হোল্ডার।

নার্গিস ফকরি— তিনি পাকিস্তানী, এ কথা জানেন প্রায় সকলেই। কিন্তু, ‘রকস্টার’ খ্যাত এই অভিনেত্রী আদতে মার্কিন নাগরিক।

জ্যাকলিন ফার্নান্ডেজ— ভারতের প্রতিবেশী দেশ শ্রীলঙ্কার সেরা সুন্দরী নির্বাচিত হয়েছিলেন তিনি। বর্তমানে তিনি বলিউড কাঁপাচ্ছেন ঠিকই, কিন্তু তাঁর নাগরিকত্ব শ্রীলঙ্কারই।






মন্তব্য চালু নেই