মেইন ম্যেনু

বরিশালে চারুশিল্পীদের কর্মব্যস্ততায় চলছে বর্ষবরণের শেষ প্রস্তুতি

কল্যাণ কুমার চন্দ, বরিশাল : বাংলা সনের প্রথমদিন পয়লা বৈশাখ বাঙালির প্রাণের উৎসব। বাঙালির নিজস্ব জাতিস্বত্ত্বার অস্তিত্ব টিকিয়ে রাখার অন্যতম উৎসব বৈশাখ বরণ। সেই গ্রামাঞ্চল থেকে শহর পর্যন্ত সবখানেই বৈশাখের আয়োজনে থাকছে নানান কর্মসূচী। বৈশাখ বরণ মানেই মঙ্গল কামনায় শোভাযাত্রার আয়োজন, পাশাপাশি চলছে বৈশাখি মেলার আয়োজন। আর এ বাংলা নববর্ষকে ঘিরেই শেষ মুহুর্তের প্রস্তুতিতে দিন-রাত ব্যস্ত সময় পার করছেন বরিশালের চারুকলা, উদিচীসহ বিভিন্ন সাংস্কৃতিক সংগঠনের সংগঠক, কর্মী ও শিল্পীরা।

আবহমান বাংলার সংস্কৃতির বিভিন্ন চিত্র ফুটিয়ে তুলতেই তাদের এ ব্যস্ততা। চারুকলা বরিশালের আয়োজনে ২৫ বছর পূর্তি উদ্যাপন উপলক্ষে এবারের আয়োজনের আগাম সকল প্রস্তুতি চলছে নগরীর বীরশ্রেষ্ঠ ক্যাপ্টেন মহিউদ্দিন জাহাঙ্গীর সড়কস্থ চারুকলার অস্থায়ী কার্যালয়ে। সেখানে বসে চারুকলার ছাত্র-ছাত্রী, সংগঠক ও শিল্পীরা নতুন করে তৈরী করছেন কৃত্তিম কুমির, হাতিসহ বিভিন্ন সব জিনিসের মুখোশ, রাখি ও মুকুট। মঙ্গল শোভাযাত্রা আয়োজনের সমন্বয়ক সারতিজ রিদওয়ান অয়র জানান, সবকিছু ঠিকঠাক থাকলে পহেলা বৈশাখ সকাল সাত টায় সিটি কলেজ মাঠের মঞ্চে শুরু হবে চারুকলার আয়োজনে বৈশাখ বরণের দুইদিনব্যাপী কর্মসূচী। যেখানে সঙ্গীত পরিবেশন করবেন প্রান্তিক সংগীত গোষ্ঠী ও নজরুল সাংস্কৃতিক জোট। এরপর সেখানে গুনিজন ও মুক্তিযোদ্ধাদের রাখি পড়ানো ও সম্মাননা প্রদান করা হবে।

এরপর সাতটা ৫৯ মিনিটে কলেজ প্রাঙ্গন থেকে মঙ্গল শোভাযাত্রা বের করে নগরীর প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিন করা হবে। ২৫ বছর পূর্তি উপলক্ষে এবারের শোভাযাত্রার সম্মুখভাগে ২৫ দলিত হরিজন নারী উপস্থিতি নিশ্চিত করা হয়েছে।

তিনি আরও জানান, এর আগে শোভাযাত্রার আয়োজন সীমিত হলেও এখন এ শোভাযাত্রায় যোগ দিতে ভীড় করেন নগরীর হাজার হাজার মানুষ। নারী-পুরুষ, তরুণ-তরুণী, শিশু থেকে বৃদ্ধ পর্যন্ত সামিল হন বর্ণময় এ মঙ্গল শোভাযাত্রায়। মঙ্গলশোভাযাত্রা শেষে বরিশাল সিটি কলেজে চিত্রাংকন প্রতিযোগিতা ও প্রদর্শণীসহ লোকজসংস্কৃতি প্রদর্শণীর আয়োজন করা হয়েছে। ১লা ও ২রা বৈশাখ সন্ধ্যায় আয়োজন করা হয়েছে কবিগান, বাউলগান, নৃত্যানুষ্ঠান, নাটকসহ নানা সাংস্কৃতিক আয়োজন। তবে এবারই প্রথম জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের একটি গ্রুপ পুতুল নাচ দেখাতে আসবেন। যারা দ্বিতীয় দিন সন্ধ্যায় পুতুল নাচ দেখাবেন।

চারুকলার পাশাপাশি উদীচী শিল্পগোষ্ঠী প্রতিবছরের ধারাবাহিকতা বজায় রেখে এবারেও আয়োজন করেছেন নানান অনুষ্ঠান। বাঙালি সংস্কৃতির বিভিন্ন উপাদান নিয়ে সৃষ্টিশীল কাজ করা বাংলাদেশ উদীচী শিল্পীগোষ্ঠী বরিশাল জেলা সংসদ বিগত ৩৫ বছরের ধারাবাহিকতায় এবারও বাঙালির প্রাণের উৎসব বাংলা নববর্ষ ১৪২৪ বরন উপলক্ষে ব্রজমোহন বিদ্যালয় মাঠে ব্যাপক কর্মসূচি গ্রহন করেছে। উদীচী বরিশাল জেলা সংসদের সাংগঠনিক সম্পাদক জুবায়ের হোসেন শাহেদ জানান, অনুষ্ঠানমালার মধ্যে পহেলা বৈশাখ সকাল সাড়ে ছয়টায় প্রভাতী অনুষ্ঠানের পরপরই রাখি বন্ধন, ঢাক উৎসব ও আটটায় সার্বজনীন মঙ্গল শোভাযাত্রা।

শোভাযাত্রাটি ব্রজমোহন বিদ্যালয় মাঠ থেকে শুরু করা হবে। সকাল ১০টায় বিদ্যালয় প্রাঙ্গনে অনুষ্ঠিত হবে চিত্রাংকন প্রতিযোগিতা। পাশাপাশি ১ থেকে ৩ বৈশাখ পর্যন্ত বিদ্যালয় প্রাঙ্গনে আয়োজন করা হয়েছে বৈশাখী মেলা। যেখানে প্রতিদিন সন্ধ্যায় আয়োজন করা হবে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান।

এদিকে পহেলা বৈশাখে জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকেও নানান কর্মসূচীর আয়োজন করা হয়েছে। বরিশালের শব্দাবলী গ্রুপ থিয়েটারের উদ্যোগে তিনদিনের বৈশাখী উৎসবেরও আয়োজন করা হয়েছে। থিয়েটারের সাংগঠনিক সম্পাদক মিথুন সাহা জানান, বর্ষবরণ আয়োজনে শহীদ মিনার প্রাঙ্গনে শব্দাবলীর বৈশাখী উৎসবে থাকবে লোকজ ও বাউল সঙ্গীত পরিবেশন।

নগরীর প্লানেট পার্কেও বৈশাখী মেলার পাশাপাশি সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়েছে। থাকছে বানিজ্য মেলায়ও বিশেষ ছাড়। পাশাপাশি জেলার প্রতিটি উপজেলার গ্রামীণ পর্যায়ে রয়েছে বৈশাখী মেলার আয়োজন। মহানগর ও জেলা পুলিশের পক্ষ থেকে বর্ষবরণ উপলক্ষে ব্যাপক নিরাপত্তার ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে।






মন্তব্য চালু নেই