মেইন ম্যেনু

স্কুলে পাঠদান বন্ধ, ৩দিনের ছুটি ঘোষনা

বগুড়ার সারিয়াকান্দিতে বন্যা পরিস্থিতি অপরিবর্তিত

বগুড়ার সারিয়াকান্দিতে গতকাল পর্যন্ত যমুনা নদীর পানি কমলেও সার্বিক বন্যা পরিস্থিতি অপরিবর্তিত রয়েছে। এ জন্য বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ৩ দিনের ছুটি ঘোষনা করা হয়েছে। উপজেলা শিক্ষা অফিসার কামরুল হাসান ছুটির ব্যাপারে সত্যতা স্বীকার করেন। ওই অফিসের কম্পিউটার অপেরটার আব্দুস সালাম জানান, উপজেলার চরাঞ্চল সহ নিুাঞ্চলের ৩০টি স্কুল এ ছুটির আওতায় আসবে। তবে ১৭টি স্কুল একেবারেই পাঠদান বন্ধ রয়েছে। বাকি ১৩টি প্রাথমিক বিদ্যালয় অন্যত্র ক্লাসের অনুমতি রয়েছে। সরজমিনে দেখা যায়, ওই সব স্কুলে বারান্দায় কোমর সমান পানি এবং চারপাশে বন্যার পানি থাকায় কর্তৃপক্ষ বাধ্য হয়ে এ ছুটি ঘোষনা করেন।
অন্যদিকে ভাঙ্গন কবলিত জায়গায় পানি উন্নয়ন বোর্ড বালিভর্তি জিও ব্যাগ ফেলে ধস ঠেকানোর চেষ্টা চালাচ্ছেন। পাউবো সূত্র জানায়, যমুনা নদীতে পানি কমার কারনে প্রচন্ড ঘূর্ণাবর্তের সৃষ্টি হয়েছে এবং স্্েরাত বেড়েছে। চন্দনবাইশা ও রৌহাদহ গ্রামে নদী ভাঙ্গন অব্যাহত রয়েছে। গত কয়েকদিনে যমুনা নদীর ভাঙ্গনে বন্যা নিয়ন্ত্রন বাঁধের ১৪০ মিটার বিলীন হয়েছে। বন্যা দূর্গত এলাকার লোকজনের বিশুদ্ধ পানীয় জলের তীব্র সংকট দেখা দিয়েছে। লোকালয়ে পানি প্রবেশ করায় সৌচাগার নিমর্জ্জিত। ফলে দূর্গত এলাকার লোকজন দৈনন্দিন জীবন যাপনে মানবেতর জীবন যাপন করছে।



« (পূর্বের সংবাদ)



মন্তব্য চালু নেই