মেইন ম্যেনু

‘প্রবাসী রেমিটেন্সের ওপর কোনো ফি নয়’

সৌদির অর্থমন্ত্রী রোববার এক বিবৃতিতে ঘোষণা করেছেন, দেশের বাইরে প্রবাসী রেমিটেন্সের ওপর কোনো ফি ধার্য করা হবে না। এর আগে উপদেষ্টা সূরা কাউন্সিল জানিয়েছিল, প্রবাসী রেমিটেন্সের ওপর ৬ শতাংশ ফি ধার্যের প্রস্তাবনা নিয়ে আলাপ আলোচনা চলছে। খবর আরব নিউজের।

অর্থ মন্ত্রণালয়ের অফিসিয়াল টুইটবার্তায় জানানো হয়েছে, সৌদি সরকার আন্তর্জাতিক মানদণ্ড অনুযায়ী মুদ্রা প্রবাহের অবাধ নীতিতে বিশ্বাসী।

সৌদির এক তৃতীয়াংশ অর্থাৎ প্রায় তিন কোটি বাসিন্দাই বিদেশি। এদের মধ্যে অধিকাংশই নিজের দেশে যে পরিমান অর্থ উপার্জন করতে পারতো তার চেয়ে কয়েক গুণ বেশি অর্থ উপার্জন করছে সৌদিতে। অথচ এরা কর দিতেও আগ্রহী নয়।

গত বছরের সংস্কার পরিকল্পনা এবং তেলের নিম্নমুখী দামের কারণে এমনিতেই অর্থনৈতিক চাপে রয়েছে সৌদি। এর মধ্যে বিদেশি শ্রমিকদের আয়ের ওপর ইনকাম ট্যাক্স আরোপের প্রস্তাবনাও রয়েছে।

জেনারেল অডিটিং ব্যুরোর (জিএবি) সাবেক প্রধান হুসাম আল-আনকারি প্রবাসী রেমিটেন্সের ওপর প্রস্তাবনা পেশ করেছিলেন। এই প্রস্তাবনা অনুমোদন করেছে শূরার আর্থিক কমিটি।

আনকারির দাবি, এই প্রস্তাবনা সৌদিতে বসবাসকারী প্রবাসীদের উপার্জিত অর্থ খরচ করতে উৎসাহিত করবে। প্রস্তাবনার আওতায় সংগৃহীত ফি সৌদি অ্যারাবিয়ান মনিটারি অথোরিটির (সামা) ফান্ডে জমা করা হবে।

শূরা তথ্য অনুযায়ী, ২০০৪ সালে প্রবাসী রেমিটেন্স ছিল ৫৭ বিলিয়ন সৌদি রিয়াল যা ২০১৩ সালে বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১৩৫ বিলিয়ন সৌদি রিয়াল।






মন্তব্য চালু নেই