মেইন ম্যেনু

পুলিশ স্টেশনেই যৌন নিগ্রহের শিকার নির্যাতিতা

ধর্ষণের শিকার হয়েছিল ১৪ বছরের নাবালিকা। পুলিশ স্টেশনে গিয়েছিল সে অভিযোগ জানাতে। কিন্তু অভিযোগে আমল দেওয়া তো দূরের কথা উল্টে পুলিশের হাতেই যৌন নিগ্রহের শিকার হতে হল তাকে। পুরুষ পুলিশকর্মীদের সামনেই নগ্ন হতে বাধ্য করা হয়েছে তাকে। এমনই অভিযোগ নিয়ে ভারতের পাঞ্জাব ও হরিয়ানা হাই কোর্টের দ্বারস্থ হয়েছে ওই নাবালিকা।

মেয়ের হয়ে হাই কোর্টে মামলা দায়ের করেছেন সেই নাবালিকার বাবা। তার অভিযোগ, গত বছরের ২০ নভেম্বর ধর্ষণের শিকার হয় ওই নাবালিকা। বিষয়টির তদন্তের জন্য ২৩ নভেম্বর কাটিয়ার পুলিশ স্টেশনে ডাকা হয় ওই নাবালিকাকে। সেখানেই পুরুষ পুলিশ কর্মীদের সামনে তাকে নগ্ন হতে বাধ্য করা হয়। এমনকি কর্মীরা নাবালিকার শরীরের আপত্তিজনক স্থানে ছুঁয়ে পরীক্ষা করে আদৌ সে ধর্ষণের শিকার হয়েছে কিনা।

সম্প্রতি পুরো বিষয়টি প্রকাশ্যে আসে যখন নাবালিকার বাবা হাই কোর্টের দ্বারস্থ হন। ইতিমধ্যেই এই বিষয়ে হরিয়ানার ডিজিপিকে নোটিস পাঠানো হয়েছে আদালতের তরফ থেকে। বিষয়টির তদন্তের নির্দেশ দিয়েছে হরিয়ানা সরকারও।

রাজ্যের স্বরাষ্ট্র দপ্তরের অতিরিক্ত সচিব রাম নিবাস জানিয়েছেন, এটি খুবই মারাত্মক একটি অভিযোগ। নাবালিকার অভিযোগের ভিত্তিতেই গোটা ঘটনার পূর্নাঙ্গ তদন্তের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে৷ এই ধরনের ঘটনা একেবারেই কাম্য নয়। যদি অভিযোগ প্রমাণিত হয় দোষীদের উপযুক্ত শাস্তি দেওয়া হবে।






মন্তব্য চালু নেই