মেইন ম্যেনু

পুলিশের কাছেও সব অস্বীকার আরাফাত সানির

বাংলাদেশ জাতীয় দলের ক্রিকেটার আরাফাত সানিকে এক দিনের রিমান্ডে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করছে পুলিশ। পুলিশের কাছে আরাফাত দাবি করেছেন, ওই নারীকে তিনি বিয়ে করেননি। আপত্তিকর কোনো ছবিও ফেসবুক মেসেঞ্জারে পাঠাননি। পুলিশ বলছে, তদন্তের পর আসল ঘটনা জানা যাবে।

মামলার তদন্ত কর্মকর্তা মোহাম্মদপুর থানার উপপরিদর্শক (এসআই) মো. ইয়াহিয়া বলেন, তথ্য ও যোগাযোগপ্রযুক্তি আইনে করা মামলায় কথার গুরুত্ব কম। মোহাম্মদপুর থানায় আরাফাত সানিকে আরও জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। মামলার বাদী ওই নারীর মোবাইল ফোন সেট আলামত হিসেবে তাঁরা জব্দ করেছেন। সেটি ফরেনসিক পরীক্ষার জন্য পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগে (সিআইডি) পাঠানো হয়েছে। মোবাইলে কে ছবি পাঠিয়েছেন, কীভাবে পাঠিয়েছেন, সব জানা যাবে।

গতকাল রোববার তথ্য ও যোগাযোগপ্রযুক্তি আইনে করা এক নারীর মামলায় আরাফাত সানিকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। পুলিশ তাঁর পাঁচ দিনের রিমান্ড আবেদন করে। আদালতে এক দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

মামলায় অভিযোগ আনা হয়, আরাফাত সানির সঙ্গে ওই নারীর ২০১৪ সালের ৪ ডিসেম্বর বিয়ে হয়। গত বছরের ১২ জুন আরাফাত দুজনের একান্ত ব্যক্তিগত ছবি ও নারীর একক আপত্তিকর ছবি মেসেঞ্জারে পাঠান। ছবি পাঠিয়ে আরাফাত সানি ওই নারীকে হুমকি দেন। পরে আবার ২৫ নভেম্বর আরাফাত ওই নারীকে আপত্তিকর ছবি পাঠিয়ে ভয়াবহ পরিস্থিতির জন্য অপেক্ষা করতে বলে হুমকি দেন।

আরাফাতের আইনজীবীরা গতকাল আদালতে বলেছিলেন, তিনি (আরাফাত) ওই নারীকে বিয়ে করেননি। এর পরপরই ওই নারীর আইনজীবীরা আদালতে বিয়ের একটি কাবিননামা দাখিল করেছেন।

তদন্ত কর্মকর্তা ইয়াহিয়া বলছেন, কাবিননামার সত্যতা যাচাই হবে।






মন্তব্য চালু নেই