মেইন ম্যেনু

পিনাক-৬-এর মালিককে চট্টগ্রাম থেকে গ্রেপ্তার করেছে র‍্যাব

মুন্সীগঞ্জের পদ্মায় আড়াইশ যাত্রী নিয়ে ডুবে যাওয়া লঞ্চ পিনাক-৬-এর মালিক আবু বক্কর সিদ্দীক ওরফে কালু মিয়াকে (৬৫) আটক করেছে র‌্যাব-৭। মঙ্গলবার রাত তিনটায় চট্টগ্রাম নগরীর ডবল মুরিং থানার আগ্রাবাদ এলাকার হাউজিং সোসাইটির একটি বাসা থেকে তাকে আটক করে র‌্যাব-৭। আটকের পর তাকে চট্টগ্রাম থেকে মুন্সীগঞ্জ নেয়া হয় এর পর তাকে ঢাকায় র‌্যাব সদর দপ্তরে আনা হবে। র‍্যাব ৭ এর অতিরিক্ত মহাপরিচালক কর্নেল জিয়াউল আহসান গ্রেপ্তারের বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, মাওয়ায় লঞ্চ ডুবির পর থেকে পিনাক-৬-এর মালিক আবুবকর সিদ্দিকি ওরফে কালু মিয়া পলাতক ছিলেন। ঘটনার পর থেকে মোবাইল ট্রাকিংয়ের মাধ্যমে তার অবস্থান নিশ্চিত করে র‍্যাব। এর পর মঙ্গলবার রাতে চট্টগ্রামের আগ্রাবাদের নিজ বাসা থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। তাকে বর্তমানে মুন্সীগঞ্জ থেকে ঢাকায় আনা হচ্ছে। এ ব্যাপারে র‍্যাব সদরদপ্তরে সংবাদ সম্মেলন করা হবে বলেও জানান তিনি।

এর আগে মাওয়ায় লঞ্চডুবির ঘটনার ৮ দিনের মাথায় এসে উদ্ধার কাজ পুরোপুরি স্থগিত ঘোষণা করা হয়। তবে স্থানীয়ভাবে কেউ উদ্ধার তৎপরতা চালালে তাদেরকে সহযোগিতা করবে বলেও জানায় জেলা প্রশাসন। এক সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য জানান মুন্সীগঞ্জের জেলা প্রশাসক মো. সাইফুল হাসান বাদল। নদীর তলদেশে পাওয়া ধাতব বস্তুর ইমেজ নিয়ে কাজ করা সম্ভব হচ্ছে না বলে জানান তিনি। মাত্র ৮ মিনিটের সংবাদ সম্মেলনে জেলা প্রশাসক বলেন, ডুবুরিরা সাধারণত ঘণ্টায় এক থেকে দেড় নটিক্যাল মাইল গতিতে প্রবাহমান স্রোতে নিচে নেমে উদ্ধার তৎপরতা চালাতে পারে। কিন্তু ঘটনাস্থলে এখন ৫ থেকে ৬ নটিক্যাল মাইল গতিতে স্রোত প্রবাহমান। তিনি জানান, ভবিষ্যতে এ এলাকায় নৌ দুর্ঘটনা রোধে উদ্ধারকারী জাহাজের যেকোনো একটি সার্বক্ষণিক নিয়োজিত থাকবে।

গত ৪ অগাস্ট কাওড়াকান্দি থেকে মাওয়া আসার পথে ডুবে যায় লঞ্চ পিনাক-৬। এ পর্যন্ত মোট ৪৬ জনের লাশ উদ্ধার করা হলেও মাওয়ার কাছে পদ্মা নদীতে ডুবে যাওয়া লঞ্চটির অবস্থান শনাক্ত করা যায়নি আট দিনেও। প্রত্যক্ষদর্শী ও পুলিশের বর্ণনা অনুযায়ী, ধারণক্ষমতার দ্বিগুণ যাত্রী নিয়ে আসার পথে ঢেউয়ের তোড়ে মাঝনদীতে ডুবে যায় পিনাক-৬। সরকারি হিসাবে শনিবার পর্যন্ত নিখোঁজের সংখ্যা ১২২ জন বলা হলেও রবিবার তা হঠাৎ অর্ধেকে নামিয়ে আনা হয়। রবিবার বিকালে মাওয়ায় পুলিশের নিয়ন্ত্রণকক্ষ থেকে বলা হয়, নিখোঁজ রয়েছেন ৬১ জন।






মন্তব্য চালু নেই