মেইন ম্যেনু

নয়াপল্টনে কুকুর ছাড়া কেউ থাকে না : কামরুল

আন্দোলনের ডাক দিলে বিএনপি অফিসে কুকুর ছাড়া কোনো নেতাকর্মীকে খুঁজে পাওয়া যায় না বলে কটাক্ষ করেছেন ঢাকা মহানগর আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও খাদ্যমন্ত্রী অ্যাডভোকেট কামরুল ইসলাম।

বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া ও ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরকে উদ্দেশ করে তিনি বলেন, ‘আপনারা আন্দোলনের হুমকি দেন। তাতে কোনো লাভ হবে না। আগে দল গোছান পরে আন্দোলনের কথা বলেন। কারণ ২৯ ডিসেম্বর ‘মার্চ ফর ডেমোক্রেসি’ আন্দোলনের ডাক দিয়েছিলেন। অথচ কোনো নেতাকর্মীকে মাঠে পাওয়া যায়নি।’

শুক্রবার জাতীয় প্রেসক্লাবের কনফারেন্স লাউঞ্জে বাংলাদেশ দেশরত্ন পরিষদ আয়োজিত ‘মাসব্যাপী শোক পালন উপলক্ষ্যে’ এক আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।

কামরুল বলেন, ‘আপনার বলেছেন আন্দোলন করবেন, করুন। কিন্তু আন্দোলন যেন নিয়মতান্ত্রিক ও গণতান্ত্রিক হয়। আর তা না হলে প্রশাসনও বসে থাকবে না। কারণ এই প্রশাসনের রেফারি হিসেবে ভূমিকা পালন করবেন স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল। ফাউল করবেন, সঙ্গে সঙ্গে লাল কার্ড পাবেন। আর তার শাস্তিও ভোগ করতে হবে।’

তিনি আরো বলেন, ‘সংবিধান অনুযায়ী ২০১৯ সালের আগে বাংলাদেশে কোনো নির্বাচন নয়। আর এই নির্বাচন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার অধীনেই হবে। অর্থাৎ নির্বাচনের জন্য প্রস্তুতি নেন। আপনি (খালেদা) দেশে তত্ত্বাবধায়কের স্বপ্ন দেখছেন। সে স্বপ্ন স্বপ্নই থেকে যাবে।’

দেশে কোনো রাজনৈতিক সঙ্কট নেই দাবি করে তিনি বলেন, ‘তাই আপনাদের সঙ্গে কোনো আলোচনা বা সংলাপেরও সুযোগ নেই। আর আগামী নির্বাচনের নির্বাচনকালীন সরকারেও আপনাদের থাকার কোনো সুযোগ নেই। কারণ এখন আর আপনারা সংসদে নেই। গত নির্বাচনে সংসদে ছিলেন বলেই আপনাদের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর দায়িত্ব দেয়ার জন্যও আমরা বলেছিলাম। গত নির্বাচনে ভুল করেছেন। তাই এই নির্বাচনে ভুলটা অন্তত করবেন না। আর নির্বাচন ছাড়া বিকল্প পথ খুঁজছেন! ওই পথ খুঁজে আর কোনো লাভ নেই। সেই সুযোগ নেই। আজকে ২০১৪ সাল।’

সংগঠনের সভাপতি চিত্তরঞ্জন দাসের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে আরো উপস্থিত ছিলেন- স্বারাষ্ট্রপ্রতিমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল, ঢাকা মহানগর আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক শাহে আলম মুরাদ, ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়নের সাবেক সাধারণ সম্পাদক শাবান মাহমুদ, স্বাধীন বাংলা বেতার কেন্দ্রের শিল্পী মনোরঞ্জণ ঘোষাল, বঙ্গবন্ধু সাংস্কৃতিক জোটের সাধারণ সম্পাদক অরুণ সরকার রানা প্রমুখ।






মন্তব্য চালু নেই