মেইন ম্যেনু

নারায়ণগঞ্জের ৭ হত্যা মামলার আসামি নূর হোসেনের কর্মচারী বেনাপোল থেকে নিখোঁজ

নারায়ণগঞ্জের আলোচিত ৭ হত্যা মামলার প্রাধান আসামি নূর হোসেনের দোকানের সাবেক কর্মচারী কামাল হোসেন (৩৮) নিখোঁজ হয়েছেন। পরিবারের সদস্যদের দাবি, পুলিশ পরিচয়ে বৃহস্পতিবার বিকেলে বেনাপোল থেকে তাকে তুলে নেওয়া হয়। এরপর থেকে তার কোন খোঁজ নেই। তবে পুলিশ বলছে, কামাল নামে কাউকে আটক করা হয়নি। নিখোঁজ কামাল হোসেন যশোরের সীমান্তবর্তী শার্শা উপজেলার শ্যামলাগাছি গ্রামের বাসিন্দা। নিখোঁজ কামাল হোসেনের স্ত্রী হেনা খাতুন’র সাথে মোবাইলে কথা হয়- তিনি জানান, বৃহস্পতিবার বিকেলে আছরের নামাজের পর কামাল হোসেন বাড়ি থেকে বের হয়ে বেনাপোলে যায়। সেখানে অবস্থানকালে ফোনে আমার সাথে কথাও হয়। এর কিছুক্ষণ পর দুর্গাপুর রোডের বাদশার দোকানের সামনে থেকে বেনাপোল পোর্ট থানার দারোগা প্রকাশ তাকে আটক করে নিয়ে যায়। ঘটনাস্থলে গিয়ে প্রত্যক্ষদর্শীদের কাছ থেকে তিনি বিষয়টি জেনেছেন বলে জানান। পরে দারোগা প্রকাশ ও বেনাপোল পোর্ট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তার (ওসি) কাছে ফোন করলে তারা কামালের আটকের বিষয়টি অস্বীকার করেন। তিনি আরও জানান, বিভিন্ন মাধ্যম দিয়ে পুলিশের কাছে আটকের তথ্য জানতে চাইলে কামাল নামে কাউকে আটক করা হয়নি বলে জানানো হয়। বিষয়টি জেলা পুলিশের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদেরও অবহিত করা হয়েছে। হেনা খাতুন আরও জানান, তার স্বামী নারায়ণগঞ্জের নূর হোসেনের দোকানের কর্মচারী ছিলেন। মাস দু’য়েক আগে চাকরি ছেড়ে তিনি বাড়ীতে ফিরে আসেন। এ ব্যাপারে বেনাপোল পোর্ট থানার এএসআই প্রকাশ’র সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, কামাল নামে কাউকে আটক করেনি। তবে শুনেছি নারায়ণগঞ্জের পুলিশ বেনাপোল থেকে একজনকে আটক করে নিয়ে গেছে। কাকে নিয়ে গেছে তা বলতে পারবো না। নিখোঁজ কামালের পরিবার বলছে ঘটনার সত্যতা ধামা চাপা দেওয়ার জন্য তাকে হত্যার পরিকল্পনা নিয়ে গুম করা হয়েছে। তবে সব বাধা উপেক্ষা করে নিখোঁজ কামালকে ফিরে পেতে চায় তার পরিবার।



(পরের সংবাদ) »



মন্তব্য চালু নেই