মেইন ম্যেনু

নাইজেরিয়ায় ট্রাম্পের সমর্থনে সমাবেশে নিহত ২০

যুক্তরাষ্ট্রসহ বিশ্বজুড়ে নতুন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের বিরুদ্ধে বিক্ষোভ এখন তুঙ্গে। কিন্তু এরই মধ্যে নাইজেরিয়ায় ট্রাম্পের সমর্থনে সমাবেশ করতে গিয়ে পুলিশের সঙ্গে সংঘর্ষে ২০ জন নিহত হয়েছেন।

বিশ্বজুড়ে ট্রাম্পকে প্রত্যাখ্যান ও বর্জনের হিড়িকের মধ্যে নাইজেরিয়ার দক্ষিণাঞ্চলে একটি বিচ্ছিন্নতাবাদী সংগঠন তাকে স্বাগত জানিয়েছে। দেশটির রিভার্স রাজ্যে বিচ্ছিন্নতাবাদী সংগঠন ইন্ডিজেনাস পিপল অব বিয়াফ্রা চাইছে, ট্রাম্প যেন তাদের বিয়াফ্রান রাষ্ট্র গঠনে সমর্থন দেন।

আফ্রিকায় ইগবো ভাষাভাষী জনগোষ্ঠী সবচেয়ে বড়। ইগবো ভাষাভাষীরা নাইজেরিয়ার বিয়াফ্রায় স্বাধীন রাষ্ট্র গঠনের জন্য আন্দোলন করে আসছে। তাদের দাবির প্রতি সমর্থন চেয়ে ট্রাম্পের অভিষেকের দিন সমাবেশ করে তারা।

যুক্তরাষ্ট্র থেকে মুসলিমদের বিতাড়নে ট্রাম্পের উদ্যোগকে স্বাগত জানিয়েছে এই গোষ্ঠীটি। তাদের অভিযোগ, নাইজেরিয়ার মুসলিমপ্রধান সরকার ও সরকারপ্রধান মুহাম্মদ বুহারির কাছ থেকে তারা বঞ্চনার শিকার হচ্ছেন।

জর্জ ইপোব নামে এক বিক্ষোভকারী জানিয়েছেন, সদ্যসাবেক প্রেসিডেন্ট ওবামার চেয়ে ট্রাম্প তাদের প্রতি বেশি সংবেদনশীল। তিনি মুক্ত খ্রিষ্টান সম্প্রদায়ের নেতা হিসেবে আবির্ভূত হয়েছেন।

এ সমাবেশ থেকে অনেককে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। সমাবেশের এক সংগঠক জানিয়েছেন, গ্রেপ্তার হওয়া ব্যক্তিদের মুক্ত করতে প্রচেষ্টা অব্যাহত রয়েছে। তিনি অভিযোগ করেছেন, প্রায় ২০০ ব্যক্তি নিখোঁজ রয়েছে।

বিয়াফ্রান রাষ্ট্র গঠন নিয়ে ১৯৬৭ থেকে ১৯৭০ সাল পর্যন্ত নাইজেরিয়ায় গৃহযুদ্ধ হয়। সেই যুদ্ধে প্রায় ১০ লাখ মানুষ নিহত হয়।

তথ্যসূত্র : দি সান অনলাইন।






মন্তব্য চালু নেই