মেইন ম্যেনু

ধোনি ও সাক্ষীর মধুর সম্পর্ক নিয়ে কিছু কথা

ভারতীয় ক্রিকেট দলের সাবেক অধিনায়ক মহেন্দ্র সিংহ ধোনি স্ত্রী সাক্ষী, মেয়ে জিভাকে নিয়ে সুখী সংসার করছেন। সাক্ষীর সঙ্গে তাঁর সম্পর্ক অত্যন্ত মধুর। সবসময় ধোনিকে সমর্থন করেন সাক্ষী।

তবে ছোটবেলা থেকে একে-অপরকে চিনলেও, মাঝে একেবারেই যোগাযোগ ছিল না তাঁদের। ধোনির জীবনে এসেছিলেন অন্য কয়েকজন মহিলা। কিন্তু বিভিন্ন কারণে সেই সম্পর্ক টেকেনি। শেষপর্যন্ত সাক্ষীর সঙ্গে আবার দেখা হয় ধোনির। এরপর তাঁরা বিয়ে করেন।

ধোনি ও সাক্ষী দু জনের বাবাই রাঁচির মেকনে চাকরি করতেন। দুই পরিবারের ঘনিষ্ঠতা ছিল। ফলে ধোনি ও সাক্ষী ছোটবেলা থেকেই একে অপরকে চিনতেন। এমনকী, তাঁরা একই স্কুলে পড়তেন। কিন্তু তখন শুধুই বন্ধুত্ব ছিল। পরে সাক্ষীরা দেহরাদুনে চলে যান। তাঁদের যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে যায়।

ধোনির জীবনে আসেন প্রিয়ঙ্কা ঝা। এক মর্মান্তিক দুর্ঘটনায় তাঁর মৃত্যু হয়। পরবর্তীকালে আরও কয়েকজনের সঙ্গে ধোনির নাম জড়ায়। এরই মধ্যে ২০০৭ সালের শেষদিকে কলকাতার একটি পাঁচতারা হোটেলে আচমকাই ধোনির সঙ্গে দেখা হয় ছোটবেলার বন্ধু সাক্ষীর।

পাকিস্তানের বিরুদ্ধে সিরিজের দ্বিতীয় টেস্ট খেলতে কলকাতায় এসেছিলেন ধোনি। সাক্ষী সেই সময় ওই হোটেলে ইন্টার্ন হিসেবে কর্মরতা ছিলেন। ফের দেখা হওয়ার পর নতুন করে ধোনি ও সাক্ষীর মধ্যে তৈরি হয় মধুর সম্পর্ক। তাঁদের সেই সম্পর্ক আজও অটুট।






মন্তব্য চালু নেই