মেইন ম্যেনু

দোষী প্রমাণিত হলে নিষিদ্ধ হবে সানি : পাপন

তথ্য-প্রযুক্তি মামলায় গত রোববার গ্রেফতার হয়েছেন স্পিনার আরাফাত সানি। তবে এ বিষয়টা নিয়ে এখনও ধোঁয়াশাই রয়ে গেছে। অনেকে একে ষড়যন্ত্র বলেও মন্তব্য করেছেন। যদিও বিষয়টা পুরোপুরি আদালত পর্যন্ত গড়িয়েছে। এ কারণে আদালতে যদি সানি দোষী প্রমাণিত হয়, তাহলে তাকে নিষিদ্ধ করবে বিসিবি। এমনটাই জানিয়েছেন বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন।

মঙ্গলবার নিজের কার্যালয়ে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে সানির ঘটনার কথা উল্লেখ করে পাপন বলেন, ‘একটা জিনিস বলতে পারি, এমন বিষয় বিসিবি কখনো বরদাস্ত করেনি। করবেও না। কেউ যদি এ ধরনের কাজ করে দোষী প্রমাণিত হয়, অবশ্যই সে নিষিদ্ধ হবে। তবে তার আগে অবশ্যই বিষয়টি প্রমাণ হতে হবে। আগে আদালতে প্রমাণ হোক। একটা নিউজ দেখে তো আমরা নিষিদ্ধ করতে পারি না।’

শুধু সানিই নন, গত দুই বছরে প্রায় একই কাণ্ড ঘটিয়ে জেল খেটেছেন পেসার রুবেল হোসেন। একই সঙ্গে গৃহকর্মী নির্যাতনের ঘটনায়ও জেল খেটেছেন শাহাদাত হোসেন রাজিব। ২০১৪ সালের শেষ দিকে অখ্যাত নায়িকা নাজনিন আক্তার হ্যাপির ধর্ষণ মামলায় জেলে যেতে হয়েছিল রুবেল হোসেনকে। যদিও পরে হ্যাপি ওই মামলা তুলে নেন। এরপর ২০১৫ সালের শেষ দিকে গৃহকর্মীকে নির্যাতন করে জেল খাটেন রাজিব। তাই ক্রিকেটারদের এসব ব্যাপার নিয়ে চিন্তিত বিসিবি।

‘এটা নিয়ে আমরা (বিসিবি) চিন্তিত। তিনজন খেলোয়াড় যে জেলে গেছে, বিসিবি সেটা দেখেছে। যারা অন্যায় করেছে তারা শাস্তি পাবে। আগেও যে সমস্ত ঘটনা ঘটেছে, সে গুলোতে বিসিবি কিন্তু ছাড় দেয়নি। বিসিবি তাদের অনেক টাকা পর্যন্ত জরিমানা করেছে।’

উল্লেখ্য, গত বছরের শেষ দিকে বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগ (বিপিএল) চলাকালীন শৃঙ্খলা ভঙ্গের অভিযোগ আনা হয় সাব্বির রহমান ও আল-আমিন হোসেনের বিরুদ্ধে। পরে তারা দোষ স্বীকার করলে বড় অঙ্কের জরিমানাই করা হয় এ দুই ক্রিকেটারকে।






মন্তব্য চালু নেই